রাউজানের কদলপুরে স্বণ অলংকার ছিনিয়ে নিতে ব্যার্থ হয়ে ধারালো দা দিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী ও কন্যাকে কুপিয়ে আহত করে

প্রকাশ:| রবিবার, ১৯ জানুয়ারি , ২০১৪ সময় ০৮:২৬ অপরাহ্ণ

সাইফুল নামে এক দুবৃত্ত ।
শফিউল আলম, রাউজান প্রতিনিধিঃ রাউজানের কদলপুরে র্স্বণলংকার ছিনিয়ে নিতে ব্যার্থ হয়ে ধারালো দা দিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী ও কন্যাকে কুপিয়ে আহত করে সাইফুল নামে এক দুবৃত্ত । রাউজান উপজেলার কদলপুর ইউনিয়নের কদলপুর সিকদার পাড়া এলাকায় গতকাল রবিবার ভোর রাতে এই ঘটনা সংঘঠিত হয় । পুলিশ সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ধারালো দা সহ সাইফুল (২৫) কে গ্রেফতার করেন । আহত প্রবাসীর স্ত্রী লাকি আকতার (৩৫) ও তার কন্য কদলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্রী পারভিন আকতারকে মারাত্বক আহত অবস্থায় এলাকার লোকজন উদ্বার করে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় । লাকি আকতার (৩৫) ও তার কন্য কদলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্রী পারভীন আকতার বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে । পারভীন আকতারে অবস্থা আশংকাজনক বলে আনোয়ার হোসেন জসিম নামে তাদের আত্বীয় জানান । আহত লাকি আকতারের ভাসুর পুত্র আনোয়ার হোসেন জসিম জানান গতকাল রবিবার ভোর রাতে এলাকার নুরুল ইসলামের পুত্র মোঃ সাইফুল কদলপুর সিকদার পাড়া এলাকায় প্রবাসী মুছার ঘরে ধারালো দা নিয়ে প্রবেশ করে অতর্কিতভাবে প্রবাসী মুছার স্ত্রী লাকি আকতারকে কুপিয়ে হত্যা করার প্রচেষ্টাকালে তার কন্যা পারভীন আকতার দেখে শোর চিঃকার করলে তাকে ও কুপিয়ে মারাত্বক ভাবে আহত করে সাইফুল রক্তমাখা ধারালো দা নিয়ে পালিয়ে যায় । রাউজান থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঘটনার সাথে জড়িত সাইফুলকে রক্তমাখা ধারাওেলা দা সহ গ্রেফতার করে। এব্যাপারে আনোয়ার হোসেন জসিম বাদী হয়ে রাউজান থানায় মামলা করেন । রাউজান থানা হাজতে আটক সাইফুল বলেন লাকি আকতারের গলায় থাকা স্বর্ণের হার ছিনিয়ে নিতে না পেরে আমি মা মেয়ে দুইজনকে কুপিয়েছি ।