রাউজানের ইউপি মেম্বারের বাড়ীতে পুলিশের তল্লাসী ৪ গরু উদ্ধার

প্রকাশ:| বুধবার, ১০ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ সময় ১০:৪৭ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম, রাউজানঃ রাউজানের ১৪ নং বাগোয়্ান ইউনয়নের মেম্বার আবদুল খালেকের পাচঁখাইন বাড়ীতে গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে রাউজান থানা পুৃলিশ গতকাল বুধবার সন্দ্ব্যা সাড়ে সাতটার সময় চোরাই গরু উদ্বারের জন্য অভিযাণ করেন । এলাকার লোকজন ফোন করে জানান, খালেক মেম্বারের বাড়ীতে রাউজানের বিভিন্ন এলাকা থেকে ও রাঙ্গুনিয়া এলাকা থেকে চুরি করে নিয়ে আসা গরু দেখতে পেয়ে এলাকার লোকজন রাউজান থানা পুলিশকে সংবাদ দিলে গতকাল বুধবার সন্দ্ব্যায় রাউজান থানা পুলিশ খালেক মেম্বারের বাড়ীতে চোরাই গরু উদ্বারের জন্য তল্লাসী করতে গেলে খালেক মেম্বারের ঘরে তালাবদ্ব অবস্থায় দেখতে পায় । পুলিশ এসময়ে ঘরের বাইরে বেধেঁ রাখা চারটি গরু উদ্বার করেন । উদ্বার করা গরু চোরাই গরু কিনা তা নিশ্চিত করতে পুলিশ যে সব এলাকায় গরু চুরি হয়েছে সেব এলাকার লোকজনকে ডেকে পাঠানো হয়েছে বলে অভিযাণে নেতৃত্বদানকারী পুর্ব গুজরা পুলিশ তদন্ত ফাড়িঁর ইনচার্জ এস আই মহসিন জানান । খালেক মেম্বার ও তার পরিবারের সদস্যরা ঘরে তালা লাগিয়ে চলে যাওয়ায় গরুগুলো খালেক মেম্বারের কিনা তা নিশ্চিত করতে পারছেনা পুলিশ গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ৮টা ৪০ মিনিটের সময় এস আই মহসিন এই প্রতবিদকের সাথে ফোনে কথা বলার সময় জানান ।রাত সাড়ে নয়টার সময়ে বির্পোট লেখা পর্যন্ত সময়ে পুলিশ বাগোয়ান ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার আবধুল খালেকের বাড়ীতে চোরাই গরু উদ্বারে অভিযাণ চলছিলো বলে জানা গেছে । গত কয়েক দিনে রাউজানের কদলপুর ও রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে ২০টির বেশী গরু চুরির ঘটনা সংগঠিত হয় । রাউজান থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান গোপন সংবাদ পেয়ে রাউজান থানা ও পুর্ব গুজরা পুলিশ ফাড়ীঁ থেকে খালেক মেম্বারের বাড়ীতে চোরাই গরু উদ্বারের জন্য পুলিশ পাঠানো হয়েছে । পুলিশ থানায় না আসা পর্যন্ত অভিযাণের ব্যাপারে কিছুই বলা যাচ্ছেনা বলে ওসি প্রদীপ কুমার দাশঁ জানান ।