রাইখালী বাজারে অগ্নিকান্ডে ৩৫টি দোকান ভস্মিভূত, আহত ১০

প্রকাশ:| রবিবার, ২১ আগস্ট , ২০১৬ সময় ১১:১৮ অপরাহ্ণ

রাইখালী বাজারে অগ্নিকান্ডে ৩৫টি দোকান ভস্মিভূতকাপ্তাই উপজেলার রাইখালী বাজারে রবিবার দুপুরে মুসলধারে বৃষ্টির মধ্যে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৩৫টি বসত বাড়ি ও দোকান ভস্মিভুত হয়ে প্রায় ৫ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। আগুন নেভানোর সময় সুমন কান্তি দে, অশোক দাশ, পুজা ভট্টাচার্য্য, বিপ্লব সেন লাতু, প্রবীর কান্তি দেব, রুবেল কান্তি দেব, রগু নাথ বিশ্বাস, রনি বিশ্বাস সহ ১০ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে রগু নাথ বিশ্বাসের অবস্থা আশংখাজনক বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
জানা গেছে, উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নের রাইখালী (মগবাজারে) দুপুরে জনৈক দিলিপ চক্রবর্তী রান্নার ঘর থেকে বৈদুতিক শর্টসার্কিট হলে আগুনের সূত্রপাত ঘটে। মুহুর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা সমগ্র এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে বসত ঘর ও দোকানপাট পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ঘটনার খবর পেয়ে রাঙ্গুনিয়া, কাপ্তাই নৌ বাহিনীর ফায়ার সার্ভিস ও কাপ্তাই ফায়ার সার্ভিস এর তিনটি ইউনিট দুইঘন্টা ব্যাপী চেষ্ঠা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থরা হলেন দিলিপ চক্রবর্তী, নাজু চক্রবর্তী, মো. নাজিম উদ্দিন, কাজল চন্দ্র দে, আশিষ দে, নারায়ন দে, মিঠুন চক্রবর্তী, শম্ভু চক্রবর্তী, অনুপ দত্ত, মিতুয়ান রাখাইন, পরিমল ঘোষ, নির্মল ঘোষ, বিমল ঘোষ, উত্তম ঘোষ, সুবর্ণ ভট্টাচার্য্য, সুশংখ ভট্টাচার্য্য, লোটাস ভট্টাচার্য্য,মিলন দে, কমল ভট্টাচার্য্য, অরুন ভট্টাচার্য্য, তরুন ভট্টাচার্য্য, কিরন ভট্টাচার্য্য, তাপস ভট্টাচার্য্য, পুলক ভট্টাচার্য্য, মিতু রোশমী ভট্টাচার্য্য, আলোক ভট্টাচার্য্য, মিলন চৌধুরী, স্বপন চৌধুরী সহ ৩৫টি পরিবার।
ফায়ার সার্ভিস ইউনিট প্রধান মো. আবুল কালাম বলেন, বৈদুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস তিনটি ইউনিট যথা সময়ে উপস্থিত হতে ব্যর্থ হলে আরো বড় ধরনের ক্ষতির সম্ভাবনা ছিল। অগ্নিকান্ডের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুঁটে আসেন রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মো. সামশুল আরেফিন, কাপ্তাই ওয়াগাগা ১৯ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ এর উপ অধিনায়ক মো. মাহমুদুল হাসান, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য শান্তনা চাকমা, থোয়াইচিং মারমা, কাপ্তাই পরিষদ চেয়ারম্যান মো. দিলদার হোসেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তারিকুল আলম, কাপ্তাই আওয়ামীলীগের সভাপতি অংশুই চাইন চৌধুরী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত বিকাশ তংচগ্যা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর নাহার বেগম, চন্দ্রঘোনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জহিরুল হক, রাইখালী ইউপি চেয়ারম্যান সায়ামং মারমা, রাইখালী আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ইউছুপ কারবারী, ইউপি সদস্য মো. নাছির উদ্দিন, মহিলা ইউপি সদস্য রুবী আক্তার, মিজানুর রহমান বাবু মেম্বার, রাইখালী কমিউিনিটি পুলিশিং এর সাধারন সম্পাদক টিটু দেব, দোভাষীবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সহ সভাপতি বাবু সুধীর ধর, উপজেলা কৃষকলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শম্ভু বিশ্বাস ও রাইখালী বাজার সমিতির নেতৃবৃন্দ।
ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেক পরিবারকে রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক মো. শামসুল আলেফিন ৩ হাজার টাকা করে অনুদান প্রদান করেন। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারদের জলা ও উপজেলা পরিষদের মাধ্যমে আরো সহযোগীতা করার আশ্বাস প্রদান করা হয়।