রশিদ নগরের ক্ষুদে শিক্ষার্থীর ভূমিকম্প দূর্ঘটনা রক্ষা যন্ত্র

প্রকাশ:| রবিবার, ২৮ মে , ২০১৭ সময় ০৯:২৩ অপরাহ্ণ


সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও (কক্সবাজার) প্রতিনিধি:
ভূমিকম্প শুরু হবার সাথে সাথে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের লাইন। এমন একটি যন্ত্র তৈরি করলো ঐতিহ্যবাহী রামু খিজারী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্র আবদুল মান্নান জামসেদ। তার মতে বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দূর্যোগ প্রবণ দেশ। এখানে প্রায় সময় হয়ে থাকে প্রাকৃতিক দূর্যোগ। যেমন ঘুর্ণিঝড়, বন্যা, ভূমিকম্প ইত্যাদি। একথা সত্য যে, ভূমিকম্প ছাড়া অন্য দূর্যোগের খবরা-খবর আমরা আগে থেকেই জানতে পারি। তখন আমরা গ্যাস ও বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে দিই। আর যেহেতু ভূমিকম্প হবার আগে পূর্বাভাস দেয়ার মত কোন যন্ত্র এখনো আবিষ্কৃত হয়নি সেহেতু ভূমিকম্প কখন হবে সেটা আমাদের জানার কোন সুযোগ নেই। তাই ভূমিকম্প হলে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের লাইন বন্ধ করতে না পারায় এ সময় আমরা নানা দূর্ঘটনার শিকার হই। বড় ধরণের ভূমিকম্পের সময় যদি একটি গাড়ীর উপর বিদ্যুতের কোন খুঁটি ভেঙ্গে পড়ে। তখন তাতে মারাত্মক দূর্ঘটনা সৃষ্টির সম্ভাবনা থাকে। এছাড়া ভূমিকম্পের কারণে যদি কোন ভবনে ফাটল ধরে তখন গ্যাসের পাইপ ফেটে যেতে পারে। বিদ্যুৎ লাইন ছিঁড়ে যেতে পারে। আর তখন গ্যাসের পাইপ থেকে গ্যাস লিক করে তাতে সৃষ্ঠ আগুন থেকে ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটতে পারে। তখন বড় ধরণের দূর্ঘটনার শিকার হতে হয়। এমতাবস্থায় যদি তার আবিষ্কৃত যন্ত্রটি গ্যাস সেন্টার এবং পাওয়ার স্টেশনে সেট করে দেয়া যায়। তাহলে ভূমিকম্প শুরু হবার সঙ্গে সঙ্গে অটোমেটিকলি গ্যাস ও বিদ্যুতের লাইন বন্ধ হওয়ায় সৃষ্ট দূর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে। আর এ যন্ত্রটি তৈরি করতে তেমন কোন যন্ত্রপাতির প্রয়োজন নেই বলে জানালো রামু পানির ছড়া গ্যারেজ এলাকার এ মেধাবী শিক্ষার্থী আবদুল মান্নান।