রমজানে পণ্যের সংকট বা মূল্যবৃদ্ধির কোনো আশঙ্কা নেই

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| রবিবার, ১৩ মে , ২০১৮ সময় ০৯:৩৬ অপরাহ্ণ

রমজানে পণ্যের সংকট বা মূল্যবৃদ্ধির কোনো আশঙ্কা নেই বলে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ‘যদি কৃত্রিম উপায়ে কোনো পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি বা মজুত রেখে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করার চেষ্টা করা হয়, তাদের বিরুদ্ধে আইন মোতাবেক কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

রোববার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

আসন্ন রমজান মাস উপলক্ষে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুত, সরবরাহ, আমদানি, মূল্য পরিস্থিতি পর্যালোচনা এবং মূল্যবৃদ্ধির কারসাজি রোধ ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখার লক্ষ্যে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘চিনি, তেল, ছোলা, পেঁয়াজ, রসুন, খেজুরসহ সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য চাহিদার তুলনায় কয়েক গুণ বেশি মজুত রয়েছে। সরবরাহ স্বাভাবিক রয়েছে। এসকল পণ্যের সংকট বা মূল্যবৃদ্ধির কোনো আশঙ্কা নেই। সরকারের বিভিন্ন বিভাগ ও সংস্থা কঠোরভাবে বাজার মনিটরিং করবে। আশা করি, কোনো ধরনের অভিযোগ পাওয়া যাবে না।’

পবিত্র রমজান মাসে সেবার মনোভাব নিয়ে ব্যবসা করার আহ্বান জানিয়ে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘প্রতিটি পণ্যের মজুত বিগত দিনের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি রয়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারেও এ সকল পণ্যের কোনো সংকট নেই কিংবা মূল্য বাড়েনি।’

বাজারের প্রকৃত চিত্র তুলে ধরে সংবাদ পরিবেশনের জন্য গণমাধ্যম প্রতিনিধিদের প্রতি আহবান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের প্রচার মাধ্যমকে এ বিষয়ে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে।’

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘বর্তমানে চিনি, ছোলা, মশুর ডাল, রসুন, গরুর মাংস, লবন ইত্যাদি নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য গত বছরের তুলনায় কম রয়েছে। তেলের মূল্যও স্বাভাবিক। আন্তর্জাতিক বাজারেও গত বছরের তুলনায় এ সকল পণ্যের মূল্য কম রয়েছে। সঙ্গত কারণে এ মুহূর্তে এগুলোর মূল্য বৃদ্ধির কোনো আশঙ্কা নেই।’

তিনি বলেন, ‘পবিত্র রমজান মাসে ব্যবসায়ীদের দায়িত্বশীল হতে হবে। সরকার ব্যবসায়ীদের চাহিদা মোতাবেক সব ধরনের সহযোগিতা প্রদান করে যাচ্ছে। সরবরাহ চেইনে যাতে কোনো ধরনের সমস্যার সৃষ্টি না হয়, সেজন্য সকল আমদানি পয়েন্টে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য খালাসের বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, পণ্য আমদানির ক্ষেত্রে কোনো ধরনের সমস্যা হবে না। দেশের মানুষ স্বাভাবিক পরিবেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করতে পারবেন।’

সভায় বাণিজ্য সচিব শুভাশীষ বযু, ট্যারিফ কমিশনের চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন আহমেদ, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাবৃন্দ, এফবিসিসিআই, সিটি গ্রুপ, মেঘনা গ্রুফ, কৃষি মন্ত্রণালয়, শিল্প মন্ত্রণালয়, পুলিশ সদর দপ্তর, এনএসআই, ডিসিসিআই, বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠন ও বাজার কমিটির প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।