‘রনি লাখো ছাত্রের…’

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১২ মে , ২০১৬ সময় ০৯:২৯ অপরাহ্ণ

নয়ন মনি‘নূরুল আজিম রণি, লাখো ছাত্রের নয়নমণি’ কচিকণ্ঠে এমন স্লোগান শুনে থমকে দাঁড়াচ্ছিলেন পথচারীরা।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে প্রখর রোদ উপেক্ষা করে নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নূরুল আজিম রণির মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে স্কুল শিক্ষার্থীরা।

সরকারি মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয়, কলেজিয়েট স্কুল, নাসিরাবাদ বয়েজ, আগ্রাবাদ গার্লস, বাওয়া, মহসিন স্কুলসহ নগরীর ৩০টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সাধারণ শিক্ষার্থীরা পোস্টার ব্যানার প্ল্যাকার্ড হাতে মানববন্ধনে অংশ নেয়। তারা স্লোগান দেয় ‘রণি ভাইয়ের হুলিয়া, নিতে হবে তুলিয়া’, ‘জেলের তালা ভাঙব, রণি ভাইকে আনব’ ইত্যাদি।

স্কুল ছাত্রলীগের সমন্বয়ক কেএম তাইফুল রফিকের দিকনির্দেশনা ও মাধ্যমিক স্কুল ছাত্রলীগ নেতা সাফায়েত ফাহিমের সভাপতিত্বে প্রতিবাদী মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য দেন সম্মিলিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের উপ শিক্ষা ও পাঠচক্রবিষয়ক সম্পাদক শাহাদাত সালাম শাওন, ওমর গণি এমইএস বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগ নেতা এইচএম কামারুজ্জামান, আনসারুল্লাহ সৌরভ, নুরুন্নবী শাহেদ, ঐশিক পাল জিতু, মিসকাত ইসলাম, ছাত্রলীগ নেতা সোহেল মাহামুদ সাইমন, ইনজামুল ইমু, সাজ্জাদ হোসেন সোহাগ প্রমুখ।

বক্তব্য দেন সরকারি মুসলিম উচ্চ বিদ্যালয় স্কুলের প্রতিনিধি রাফিউল ইসলাম নিহাল, নাছির উদ্দিন, হামিম আল আবির, চট্টগ্রাম সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের রাবি আহমেদ, সৌরভ ধর, চট্টগ্রাম মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুলের তাবীদ ইফতি, দেলোয়ার হোসেন, জিশান চৌধুরী, চিটাগাং আইডিয়্যাল স্কুলের মো. আদেল, সিএমবির শাহ রহমান ফাহিম, মো. ফাহাদ, আগ্রাবাদ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নাফিসা হাসান, সায়মা শারমীন, প্রমী তালুকদার, নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ওসামা চৌধুরী, শাহাদাত চৌধুরী, লামা বাজার স্কুলের মো. শাহাদাত হোসেন, হাবিবুল হাসান শুভ, কাপাসগোলা সিটি করপোরেশন উচ্চ বিদ্যালয়ের শাহানা রাজু, রুজিনা খাতুন প্রমুখ।

২৪ ঘণ্টার মধ্যে রণির মুক্তির দাবি জানিয়ে বক্তারা বলেন, নয়তো সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্ররা ক্লাস ছেড়ে রাজপথে নামবে। আমরা এই দেশের ছাত্রছাত্রী। বিভিন্ন সময়ে আমাদের নানা আন্দোলন সংগ্রামে রণি ভাই দিকনির্দেশনা দিয়ে আন্দোলনের দাবি আদায়ে আমাদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা করেছেন। তিনি শুধু ছাত্রলীগের নেতা হিসেবে নয় পুরো ছাত্র সমাজের অভিভাবক। সব মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহার করে অবিলম্বে তাকে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে।

স্কুলশিক্ষার্থীদের মানববন্ধন কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে মহানগর ছাত্রলীগের প্রতিনিধি দল সংহতি প্রকাশ করে। সংহতি প্রকাশকালে বক্তব্য দেন নগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইয়াছিন আরাফাত কচি, রুমেল বড়ুয়া রাহুল ও সহ-সম্পাদক নাদিম উদ্দীন।

ইয়াছিন আরাফাত কচি বলেন, রণি চট্টগ্রামের হাজারো ছাত্রের নয়নমণি, সে সব সময় শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পাশে থাকত যার প্রমাণ সাধারণ শিক্ষার্থীদের রাজপথে নেমে আসা। আমি আজকের মানববন্ধন থেকে প্রশাসনের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রণির মুক্তি দেওয়া না হলে শিক্ষার্থীদের যেকোনো কঠোর কর্মসূচিতে আমাদের সমর্থন থাকবে।

এ সময় নগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রুমেল বড়ুয়া রাহুল বলেন, শুধু সহকর্মী হিসেবে নয় একজন সাধারণ শিক্ষার্থীর বন্ধু হিসেবে আমি রণির মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের যেকোনো আন্দোলনে পাশে থাকব।


আরোও সংবাদ