রওশনকে ‘পোড়ালো’ এরশাদ সমর্থকরা

প্রকাশ:| বুধবার, ২৪ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ সময় ১০:২৩ অপরাহ্ণ

রওশনকে ‘পোড়ালো’ এরশাদ সমর্থকরাজাতীয় পার্টিতে ভাঙনের অপচেষ্টা ও এরশাদ সমর্থকদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার অভিযোগে সাবেক ফাস্ট লেডি ও বিরোধীদলীয় নেত্রী বেগম রওশন এরশাদের কুশপুতুল পুড়িয়েছে এরশাদ সমর্থকরা।

বুধবার আটটায় রংপুর মহানগরীর লালবাগ ও রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় স্থানীয় শ্রমিক পার্টির নেতা তোফার নেতৃত্বে কুশপুতুল পোড়ানো হয়।

এসময় ‘এরশাদ ও জাতীয় পার্টির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র মানি না, মানবো না’- এমন স্লোগান দেয় তৃণমূলের এরশাদ সমর্থকরা। তারা রওশন এরশাদের সঙ্গে এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গার বিরুদ্ধেও স্লোগান দেয়।

উল্লেখ্য, গত ১০ সেপ্টেম্বর সকালে জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্যের পদ থেকে জাপার রংপুর মহানগর ও জেলা কমিটির সভাপতি স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা এবং দপ্তর সম্পাদক তাজুল ইসলাম চৌধুরীকে অব্যাহতি দেন এরশাদ। বিকেলে এরশাদের প্রেস সেক্রেটারি সুনীল শুভ রায় স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জাপার রংপুর জেলা ও মহানগর কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়।

মূলত আগের কমিটির মধ্য থেকে শুধু জেলা ও মহানগর সভাপতি প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গাকে বাদ দিতেই এরশাদের এই আয়োজন। আর এরপর থেকেই রাঙ্গা অনুসারীরা পার্টি অফিস দখলে নিয়ে রাঙ্গার পদ পদবি ফিরিয়ে দেয়ার দাবিতে প্রকাশ্যে বিক্ষোভ মিছিল ও সভা সমাবেশ করে। আর এরশাদ সমর্থকরা বিভিন্ন ওয়ার্ডে ইউনিয়নে ও উপজেলায় উপজেলায় গণসংযোগ করে।

এরপর ১৯ সেপ্টেম্বর মহানগরীর সেনপাড়ার দি স্কাইভিউতে জেলা ও মহানগর জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক কমিটি সংবাদ সম্মেলনে রওশন এরশাদ ও রাঙ্গার তীব্র সমালোচনা করে। সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ বারবার জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদের সঙ্গে অবিচার করেছে। এর আগে জাতীয় পার্টির সমর্থন নিয়ে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে আনোয়ার হোসেন মঞ্জুকে দিয়ে দল ভেঙেছে। এখন বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পাটির প্রেসিডিয়াম সদস্য রওশন এরশাদ এবং স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গাকে দিয়ে দল ভাঙার ষড়যন্ত্র করছে।’

ওই সংবাদ সম্মেলনে আরো বলা হয়, সরকার ও মশিউর রহমান রাঙ্গা স্থানীয় প্রশাসনকে ব্যবহার রংপুরে এরশাদ সমর্থিত জাতীয় পার্টির মূল ধারার নেতাকর্মীদের মাঠে নামতে দিচ্ছে না।