যৌতুক নিরোধ আইনের মামলায় বান্দরবানে পৌর কাউন্সিলর পুত্র কারাগারে

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি , ২০১৪ সময় ১০:২৬ অপরাহ্ণ

বান্দরবান প্রতিনিধি ॥
যৌতুক নিরোধ আইনের মামলায় বান্দরবানে পৌর কাউন্সিলর পুত্র রতন কুমার দে এখন কারাগারে। মঙ্গলবার বান্দরবান জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট কৌশিক আহম্মদ এর আদালত স্ত্রী সুমি দে এর দায়ের করা যৌতুক নিরোধ আইন ১৯৮০ ধারা-৪ মূলে স্বামীর জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।
আইনজীবি ও পুলিশ জানায়, ২০১৩ সালের ৯ ডিসেম্বর যৌতুকের দাবীতে মানসিক নির্যাতনের ঘটনায় স্ত্রী সুমি দে বান্দরবান জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে স্বামী রতন কুমার দে এর বিরুদ্ধে যৌতুক নিরোধ আইন ১৯৮০ ধারা-৪ মূলে মামলা করেন। উক্ত মামলায় আদালত সমন জারি করলে আসামী উচ্চ আদালত থেকে জামিনের চেষ্ঠা করেন। উচ্চ আদালত আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারী মধ্যে নি¤œ আদালতে হাজির হয়ে মামলা পরিচালনার আদেশ দেন। মঙ্গলবার জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে আইনজীবির মাধ্যমে জামিন আবেদন জানালে আদালত জামিন না মঞ্জুর করে তাকে জেলে পাঠানোর নির্দেশ দেয়। আদালতের নির্দেশে পুলিশ সুন্ধায় রতন দে’কে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। অভিযুক্ত রতন কুমার দে বান্দরবান পৌরসভার মহিলা কাউন্সিলর গীতারানী দে প্রকাশ গুরাটুনির বড় ছেলে। বাদী পক্ষের আইনজীবি এ্যাড. আবুল কালাম জানান, জামিন অযোগ্য ধারায় স্ত্রীর দায়ের করা যৌতুক নিরোধ আইনের মামলায় আদালত স্বামী রতন কুমার দে’কে জেলে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।


আরোও সংবাদ