যুবলীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে নিহত ১

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৩১ জুলাই , ২০১৫ সময় ১১:৫২ অপরাহ্ণ

নিহত মনিরুল আলম (৩৮) উপজেলার মগধরা ইউনিয়নের জেলে পাড়ার হাজী সামশুল আলমের ছেলে।

ঘটনাস্থল থেকে মিজান (৩০) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় শফি চেয়ারম্যান ও সমির মেম্বার নামে দুই ব্যক্তির মধ্যে এই সংঘর্ষ বাঁধে বলে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের সীতাকুণ্ড সার্কেলের এএসপি সালাউদ্দিন শিকদার জানান।

তিনি বলেন, “শুক্রবার সন্ধ্যায় সমির মেম্বারের অনুসারীরা মগধরা জেলে পাড়া থেকে ফেরার পথে শফি চেয়ারম্যানের সমর্থকরা তাদের ওপর হামলা চালালে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দুই পক্ষ।”

হামলায় মনিরুল আলম ও তার ভাই জাহাঙ্গীর আহত হন। গুরুতর আহত মনিরুলকে সন্দ্বীপ উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নেওয়া হলে সেখানে মারা যান তিনি।

এএসপি সালাউদ্দিন জানান, স্থানীয় শফি চেয়ারম্যান ও সমির মেম্বার দুজনেই আওয়ামী লীগ সমর্থক। এলাকার আধিপত্য নিয়ে তাদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ ও পাল্টপাল্টি মামলা আছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সন্দ্বীপের উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাস্টার শাহজাহান বলেন, যারা সংঘর্ষে জড়িয়েছে তারা ‘সন্ত্রাসী’।

“নিজেদের বাঁচানোর জন্য তারা দলীয় পরিচয় ব্যবহার করে। সন্ত্রাসীদের কোনো দল থাকতে পারে না।”


আরোও সংবাদ