যুবককে পিটিয়ে হত্যা

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১২ জানুয়ারি , ২০১৭ সময় ০৯:২১ অপরাহ্ণ

কুমিল্লা সীমান্তের বিপরীতে জসিম উদ্দিন (৪২) নামে এক বাংলাদেশি যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে ভারতীয়রা।

বুধবার দুপুরে ভারতের কমলছড়া থানার নজিরপুর এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত জসিম নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার আলীপুর গ্রামের মৃত ইব্রাহিমের ছেলে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে কুমিল্লা বুড়িচং সীমান্তের শংকুচাইল বিওপির হায়দরাবাদ এলাকা দিয়ে বিজিবির কাছে নিহতের মরদেহ হস্তান্তর করেছে বিএসএফ। পিটিয়ে হত্যা ও লাশ হস্তান্তরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বুড়িচং থানার ওসি উত্তম কুমার বড়ুয়া।

জানা যায়, ভারতের নজিরপুর এলাকায় বুধবার দুপুরে বাংলাদেশি নাগরিক জসিম উদ্দিনকে (৪২) বেধড়ক মারধর করে ভারতীয়রা। খবর পেয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বিএসএফ তাকে উদ্ধার করে ভারতের বক্সনগর হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে গভীর রাতে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পূর্বে তার দেয়া নাম-ঠিকানা বিএফএস শংকচাইল বিজিবিকে অবহিত করে। এরপর বিজিবি তা বুড়িচং থানা পুলিশকে জানায়।
বুড়িচং থানা পুলিশ নিহতের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করার পর নিহতের ছেলে ও ভাই বৃহস্পতিবার বুড়িচংয়ে পৌঁছে সীমান্তে গিয়ে মরদেহ শনাক্ত করে। এদিকে, বৃহস্পতিবার বিকেলে বিএসএফ নিহত জসিমের মরদেহ বিজিবির নিকট হস্তান্তর করে। এরপর বিজিবি মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য বুড়িচং থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে।
বুড়িচং থানার ওসি উত্তম কুমার বড়ুয়া জানান, বিজিবি আমাদের নিকট মরদেহ হস্তান্তর করেছে। তবে কেন ওই ব্যক্তিকে সীমান্তের ওপারে ভারতীয়রা হত্যা করেছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
নিহতের ছিলে ইলিয়াস ও ছোট ভাই নুরে আলম জানান, জসিম উদ্দিন মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল এবং গত পাঁচ দিন যাবৎ তিনি নিঁখোজ ছিলেন। কিভাবে সে সীমান্তের ওপারে গিয়েছে তা তারা পুলিশকে জানাতে পারেনি।
কুমিল্লার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, নিহতের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে, ময়নাতদন্তের পর তার মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।