যা বলেছি তা একান্তই আমার ব্যক্তিগত মতামত,আমি খুবই দুঃখিত-আযমী

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৩১ অক্টোবর , ২০১৪ সময় ১১:৫০ অপরাহ্ণ

ফেসবুকে দেয়া স্ট্যাটাসের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন অধ্যাপক গোলাম আযমের ছেলে সাবেক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহিল আমান আযমী। তার পিতার মৃত্যুর পর বিএনপির ভূমিকায় বিস্ময় প্রকাশ করে দেয়া স্ট্যাটাসকে একান্ত ব্যক্তিগত অভিমত হিসেবে বর্ণনা করে তিনি বলেছেন, আমি জামায়াতের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত নই। আমি যা বলেছি তা একান্তই আমার ব্যক্তিগত মতামত। তারপরও আমার মন্তব্যের কারণে যদি কেউ মানসিকভাবে আহত হয়ে থাকেন তাহলে আমি খুবই দুঃখিত। অধ্যাপক গোলাম আযম যে যুদ্ধাপরাধী ছিলেন না ইতিহাস একদিন তা প্রমাণ করবে বলেও দাবি করেন তিনি । গতরাতে বেসরকারি টিভি চ্যানেল একাত্তরের টকশোতে অংশ নিয়ে তিনি একথা বলেন। আযমীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার দুঃখ প্রকাশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। ওদিকে, আব্দুল্লাহিল আমান আযমীর বক্তব্যের ব্যাপারে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সেটি গোলাম আযম পুত্রের ব্যক্তিগত মতামত। তাই আমরা বিষয়টি আমলে নেবো না। তিনি বলেন, অধ্যাপক গোলাম আযম সাহেবের ছেলে জামায়াতে ইসলামীর কর্মকর্তা কিংবা সদস্য কিনা আমার জানা নেই। জামায়াতের সঙ্গে আমাদের যে জোট রয়েছে, তা একটি নির্দলীয় সরকারের অধীনে দ্রুত নির্বাচন ও দেশে যে দুঃশাসন চলছে তা থেকে উত্তরণ ঘটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের জন্য। এরআগে এক ফেসবুকে স্ট্যাটাসে আযমী লিখেছিলেন ‘অধ্যাপক গোলাম আযমের মৃত্যুর পর পুরো বিশ্ব শোক প্রকাশ করলেও বিএনপির নীরবতায় পুরো জাতি হতাশ। আমি জানি না কেন! ‘আমার এটা বলতে কোনো দ্বিধা নেই যে, জামায়াতের সমর্থন ছাড়া বিএনপি কখনোই সরকার গঠন করতে পারতো না। দুঃখের বিষয়, এই দলের প্রতিষ্ঠাতা আমীর এবং আমৃত্যু আধ্যাত্মিক গুরুর মৃত্যুতে তাদের নীরবতা ছিল একেবারেই অপ্রত্যাশিত ও অগ্রহণযোগ্য!’ বিএনপি নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি লিখেন, ‘জামায়াতের সমর্থন ছাড়া তারা কখনো ক্ষমতায় যেতে পারবে না-এটা মাথায় রাখলে বিএনপি ভালো করবে। এটা আমার প্রকাশ্য চ্যালেঞ্জ। ‘তারা কতো অকৃতজ্ঞ হতে পারে!!!”


আরোও সংবাদ