ময়লা, আবর্জনা তল্লাশি অভিযান

প্রকাশ:| বুধবার, ১৯ নভেম্বর , ২০১৪ সময় ০৯:০৪ অপরাহ্ণ

বাড়ি, দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে ময়লা, আবর্জনা জমিয়ে রাখা হয়েছে কিনা তা দেখতে নগরজুড়ে তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। ডাস্টবিনের বাইরে বাড়ি কিংবা দোকানের সামনে আবর্জনা পাওয়া গেলে সরাসরি আদালতে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ ময়লা, আবর্জনা তল্লাশি অভিযানদিয়েছেন চট্টগ্রাম নগর পুলিশ কমিশনার মো.আব্দুল জলিল মণ্ডল।

বুধবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে নগরীর ১২ থানায় একযোগে এ অভিযান শুরু হয়েছে।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (প্রশাসন, অর্থ ও ট্রাফিক) একেএম শহীদুর রহমান বলেন, ১৮৬১ সালের পুলিশ আইনের ৩৪ ধারায় রাতের বেলা সড়কে কিংবা ডাস্টবিনের বাইরে ময়লা-আবর্জনা পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া যায়। ১৯৭৮ সালের সিএমপি অধ্যাদেশের ৮২ ধারায়ও এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া যায়।

তিনি বলেন, এসব আইনের প্রয়োগ সচরাচর হয়না। তবে পরিচ্ছন্ন নগরী গড়তে সিএমপি কমিশনার মহোদয় এসব আইনের প্রয়োগের নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নগরীর বিভিন্ন থানার টহল ও মোবাইল পার্টির সদস্যরা এ অভিযানে অংশ নিচ্ছেন। নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার এবং থানার ওসিরা এ অভিযান তদারক করছেন।

পুলিশ সদস্যরা পুরো নগরীতে ঘুরে ঘুরে কোন বাসা, ভবন, দোকান, মার্কেট কিংবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে আবর্জনা জমে আছে কিনা তা পরীক্ষা করছেন। আবর্জনা পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট ভবন, বাসা কিংবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করা হচ্ছে।

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আদালতে সংশ্লিষ্ট আইন অনুযায়ী অভিযোগ দায়ের করা হবে। তবে কাউকে আটক কিংবা গ্রেপ্তার করে হয়রানি করা হবেনা।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (বন্দর) মোস্তাক আহমেদ বলেন, পুলিশ কমিশনার মহোদয়ের নির্দেশে অভিযানে নেমেছি। পরিচ্ছন্ন নগরী গড়তে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (দক্ষিণ) মনজুর মোর্শেদ বলেন, বাসার সামনে ময়লা-আবর্জনা পাওয়া গেলে সিএমপি কমিশনার মহোদয় সরাসরি মামলা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মোবাইল পার্টি ও টহল পার্টির অভিযান আমরা মনিটরিং করছি।