ম্রো বাশিঁর সুরে ছন্দের তালে তালে নৃত্য

প্রকাশ:| সোমবার, ১৩ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ০৮:২৫ অপরাহ্ণ

চাংক্রান উৎসবে বান্দরবানে, ম্রো সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী গো-হত্যা নৃত্য প্রতিযোগীতা
বান্দরবান প্রতিনিধি॥
ম্রো বাশিঁর সুরে ছন্দের তালে তালে নৃত্য 2 ম্রো বাশিঁর সুরে ছন্দের তালে তালে নৃত্য 1 ম্রো বাশিঁর সুরে ছন্দের তালে তালে নৃত্যবান্দরবানে ম্রো সম্প্রদায়ের চাংক্রান উৎসবে ঐতিহ্যবাহী গো-হত্যা নৃত্যে নারী-পুরষেরা। ম্রো বাশিঁর সুরে ছন্দের তালে তালে নৃত্য প্রতিযোগীরা মাতিয়েছে শ্রোতাদের। আজ সোমবার দুপুরে বান্দরবানের টংকাবতী ইউনিয়নের দূর্গম সাক্ষ্যয় পাড়ায় এই উৎসব হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি বলেছেন, বর্ষ বরণ এবং বর্ষ বিদায়ের সময়ে পাহাড়ী জনগোষ্ঠীদের সবচেয়ে বড় সামাজিক উৎসবগুলো হয়। কিন্তু সরকারী বন্ধ থাকেনা। আগামী বছর থেকে এই উৎসবে চারদিনের সরকারী ছুটি থাকবে। ইতিমধ্যে সরকারের মন্ত্রী পরিষদের সভায় চারদিনের এই ছুটি পাস (অনুমোদন) হয়েছে। তিনি আরো বলেন, পার্বত্য শান্তি চুক্তির সফল ভোগ করছে পার্বত্যবাসী। শান্তি চুক্তির মৌলিক অনেকগুলো ধারা বাস্তবায়িত হয়েছে, ভূমি সমস্যা’সহ বাকি ধারাগুলো বাস্তবায়নের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। সকলের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে পার্বত্যবাসীর উন্নয়নে প্রয়োজনীয় সবধরণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। পার্বত্যাঞ্চলের মানুষের উন্নয়নে অত্যন্ত আন্তরিক সরকার।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বান্দরবান ৬৯ সেনা রিজিয়নের কমান্ডার ব্রীগেডিয়ার জেনারেল নকীব আহম্মেদ চৌধুরী, জেলা পুলিশ সুপার দেবদাস ভট্টাচার্য, ডিজিএফআই জেলা অফিসার কর্নেল শেখ শফিউল ইমাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আবু জাফর, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের পরিচালক মংনুচিং মারমা, জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মংক্যচিং চৌধুরী, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য সিইয়ং ম্রো, সদর উপজেলা ইউএনও শফিকুল ইসলাম, সাক্ষ্যয় পাড়া কার্বারী সাক্ষ্য ম্রো ’সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে চাংক্রান উৎসবে ম্রো’ নারীরা পুতি মালা তৈরি, কাপড় বুনোন, লাঠি দিয়ে ভিন্ন কায়দায় শক্তি প্রদর্শণ এবং গো-হত্যা নৃত্য প্রতিযোগীতায় অংশ নেয়। এছাড়াও জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে নাচে-গানে অতিথিদের মাতিয়েছেন ম্রো তরুন-তরুনী এবং বয়স্ক নারী-পুরুষেরা। উৎসব দেখতে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ম্রো সম্প্রদায় ছাড়াও দেশের বিভিন্ন স্থান শতশত লোকজন ভীড় জমায় সাক্ষ্যয় পাড়ায়।


আরোও সংবাদ