ম্যাক্স হাসপাতাল বন্ধ ও ফয়সালের সনদ বাতিলের দাবি

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| সোমবার, ২ জুলাই , ২০১৮ সময় ১১:৩৬ অপরাহ্ণ

ভুল চিকিৎসায় শিশু রাইফা খানকে হত্যার দায়ে অবৈধ ম্যাক্স হাসপাতাল বন্ধ ঘোষণা, দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি এবং খুনিদের পক্ষে থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ও সাংবাদিকদের হুমকি, কথায় কথায় রোগীদের জিম্মিকারী ফয়সাল ইকবালের সনদ বাতিল করা না হলে কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা।

সোমবার (২ জুলাই) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে) আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে তারা এ হুঁশিয়ারি দেন।

সিইউজে সভাপতি নাজিমুদ্দীন শ্যামলের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, সিইউজের সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শুকলাল দাশ, সিইউজের সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমদ, রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, সিইউজের সহ-সভাপতি মোহাম্মদ আলী, বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী আবুল মনসুর, যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, সিইউজের যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ, সিইউজের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আহমেদ কুতুব, সমকালের ব্যুরো প্রধান সারোয়ার সুমন, সাংবাদিক মোস্তফা ইউসুফ প্রমুখ।

শিশু রাইফার খুনিদের গ্রেফতারের দাবিতে আয়োজিত সিইউজের সমাবেশে বক্তব্য দেন বিএফইউজের যুগ্ম মহাসচিব তপন চক্রবর্তী
সমাবেশে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শওকত বাঙালি, বৃহত্তর চট্টগ্রাম উন্নয়ন সংগ্রাম কমিটির মহাসচিব এইচএম মুজিবুল হক শুক্কুর, দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভানেত্রী নারী মুক্তিযোদ্ধা স্বপ্না দত্ত, গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সম্পাদক সাইফুল আলম বাবু, সমকাল সুহৃদ সমাবেশের চট্টগ্রাম সভাপতি রাশেদ হাসান, গণআজাদী লীগের চট্টগ্রাম আহ্বায়ক মাওলানা নজরুল ইসলাম আশরাফী মাইজভাণ্ডারী, কোতোয়ালী থানা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হাসান মনসুর, চট্টগ্রাম ওমরগনি এমইএস কলেজ ছাত্র সংসদের জিএস আরশাদুল ইসলাম বাচ্চু, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক নেতা আবুল হোসেন আবুসহ চট্টগ্রামের বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এ সমাবেশে সংহতি জানান।

শহীদ উল আলম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারা দেশে যখন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করছেন ঠিক ওই সময়ে একটি কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীকে বিতর্কিত করতে কিছু অসাধু চিকিৎসক ও নেতা উঠেপড়ে লেগেছেন। তাদের এ ষড়যন্ত্র সচেতন সমাজ মেনে নেবে না। প্রতিহত করে এর সমুচিত জবাব দেবে।
মোস্তাক আহমদ বলেন, শুধু সাংবাদিক রুবেল খানের মেয়ে নয়, এর আগেও বিভিন্ন হাসপাতালে ডাক্তারের অবহেলায় রোগীর মৃত্যু হয়েছে। আস্থা হারিয়ে অনেকে বিদেশে চিকিৎসা নিতে যাচ্ছে। ম্যাক্স হাসপাতালের লাইসেন্স না থাকা সত্ত্বেও তারা হাসপাতাল চালাচ্ছে। কার ইশারায় তারা এতো দিন সেবা দিচ্ছে।

রিয়াজ হায়দার চৌধুরী বলেন, বিএমএ নেতার কোনো হস্তক্ষেপ ছাড়া ডাক্তার বিশ্বজিৎসহ জড়িতদের সনদ বাতিল করতে হবে। অবৈধ ম্যাক্স হাসপাতাল বন্ধ করতে হবে। আমরা সব ডাক্তারদের বিরুদ্ধে নই, যারা অবহেলায় সাংবাদিক রুবেল খানের মেয়েকে হত্যা করেছে তাদের শাস্তি চাই।

শুকলাল দাশ বলেন, রাইফা ভুল চিকিৎসার শিকার। ঢাকায় জগলুল আহমেদের ভুল চিকিৎসার কারণে একটি হাসপাতাল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। চট্টগ্রামের এই ম্যাক্স হাসপাতালের লাইসেন্সও বাতিল করে বন্ধ করে দিতে হবে। ভুল চিকিৎসায় জড়িতদের গ্রেফতার করতে হবে। বিএমএ থেকে তাদের বহিষ্কার করতে হবে।

তপন চক্রবর্তী বলেন, ম্যাক্স হাসপাতালের ভুল চিকিৎসাকে যারা বৈধতা দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে দুদকের তদন্ত করা দরকার। এটি সুস্পষ্ট হত্যাকাণ্ড। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অর্জন ম্লান করতেই চিকিৎসার নামে ভুল চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে। যতক্ষণ পর্যন্ত এ হত্যার বিচার না হবে ততক্ষণ লড়াই করতে হবে। ন্যায়বিচারের জন্য জ্বলে উঠতে হবে।

সমাবেশে সিইউজে সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস মঙ্গলবার (৩ জুলাই) চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাইফা হত্যার বিচারসহ তিন দফা দাবিতে সাংবাদিক-জনতার সমাবেশের কর্মসুচি ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, রাইফা হত্যার বিচার ও ম্যাক্স হাসপাতাল বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত চট্টগ্রামের সাংবাদিক সমাজ ঘরে ফিরে যাবে না।

চট্টগ্রামে ১ কোটি সাধারণ মানুষকে জিম্মি করা ডাক্তার নামের মাস্তান ফয়সাল ইকবালের হাত থেকে চিকিৎসা খাতকে রক্ষায় শহীদ মিনারের সমাবেশে সাধারণ মানুষকে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।