মৌসুমী বৃষ্টিপাতে ভারতে ৬০ জনের মৃত্যু

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৮ জুন , ২০১৩ সময় ০৮:২২ অপরাহ্ণ

ভারতের উত্তরাঞ্চলে প্রবল বর্ষণে সৃষ্ট আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসে অন্তত ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে আরও কয়েক হাজার লোক আটকা পড়েছে।india-flood_6030

মঙ্গলবার কর্মকর্তারা বলেন, হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থিত উত্তরাখন্ডের বাড়িঘর পানিতে ভেসে গেছে এবং রাস্তাঘাট নিমজ্জিত রয়েছে।

কর্তৃপক্ষ পানিবন্দি হয়ে পড়া স্থানীয় বাসিন্দা ও পূন্যার্থীদের অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার জন্য সামরিক হেলিকপ্টারের সাহায্য চেয়েছে।

উত্তরাখন্ডের দুর্যোগ ও ত্রাণমন্ত্রী যশপাল আর্য বলেন, ‘রাজ্যজুড়ে অধিকাংশ যোগাযোগ ব্যবস্থাই ভেঙ্গে পড়ায় আমরা মৃতের সঠিক সংখ্যা সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারিনি।’

তিনি এএফপিকে আরো বলেন, ‘তবে এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে অন্তত ৬০ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়াও এতে প্রায় ৫০ হাজার লোক পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।’

কর্মকর্তারা জানান, রাজ্যজুড়ে নদীর পানির স্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে, পথ-ঘাটে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে এবং কয়েকশ পূন্যার্থী পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। হিন্দুদের মন্দিরে যাওয়ার পথে এরা আটকা পড়েন।

টেলিভিশনের ফুটেজে সেতু, বাড়িঘর ও বিভিন্ন ভবন পানির তোড়ে ধসে পড়া এবং ভেসে যেতে দেখা গেছে। উত্তরাখণ্ড প্রদেশের পর্যটন শহর হৃষীকেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের দেবতা শিবের একটি বিশাল মূর্তি একটি নদীর পানিতে নিমজ্জিত হয়ে গেছে।

কর্মকর্তারা জানান, উত্তরাখণ্ডে নতুন করে শুরু হওয়া বৃষ্টিপাতে উদ্ধার তৎপরতা ব্যাহত হচ্ছে। বৃষ্টির কারণে জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের উদ্ধারদল জনপ্রিয় তীর্থশহর হরিদ্বারে অপেক্ষা করছে। এরা হেলিকপ্টারের সাহায্যে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলোতে উদ্ধার অভিযান চালাবে।

বৃষ্টির কারণে যেসব প্রত্যন্ত গ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়েছে রাজ্য সরকারের উদ্যোগে সেসব গ্রামে হেলিকপ্টার থেকে ফেলার জন্য খাবার প্যাকেট ও বিশুদ্ধ প্রস্তুত করা হচ্ছে।

সরকারি কর্মকর্তা অমিত চান্দোলার উদ্ধৃতি দিয়ে টেলিভিশনগুলো জানিয়েছে, ‘পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়াবহ। আবহাওয়া অফিস কমপক্ষে আরো তিন দিন বৃষ্টিপাত হবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে।’

পার্শ্ববর্তী হিমাচল প্রদেশের এক পুলিশ কর্মকর্তা এএফপিকে টেলিফোনে জানিয়েছেন, রাজ্যটিতে অন্তত আট জনের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে।

চীন সীমান্তের কাছে অবস্থিত কয়েকটি গ্রামে অস্বাভাবিক তুষারপাত দেখা গেছে। – See more at: http://www.alokitobangladesh.com/latest-news/2013/06/18/6030#sthash.dPDmj2qH.dpuf