দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী সড়কের নির্মান কাজ চলছে

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই , ২০১৩ সময় ০৫:১৪ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম ,নিউজচিটাগাং২৪.কম।।rawjan d m road.com
রাউজান উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী সড়কের নির্মান কাজ চলছে লোহার রড ও সিমেন্ট দিয়ে ঢালাই করার মাধ্যমে । রাউজান উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক দোস্ত মোহাম্মদ চৌধুরী সড়কটি রাউজানের মুন্সির ঘাটাস্থ রাঙ্গামাটি সড়ক থেকে রাউজানের উপজেলা পরিষদ, রাউজান পৌরসভা, রাউজান ফকির হাট বাজার হয়ে রাউজান সাব রেজিষ্টার অফিস এর সামনে দিয়ে রাউজানের কেউকদাইর, ডাবুয়া জগ্ননাথ হাট হয়ে হলদিয়ার আমির হাট এলাকা হয়ে উত্তর সর্তা হয়ে ফটিকছড়ি উপজেলার আজাদী বাজারের দক্ষিন পার্শ্বে আবদুল অদুদ চৌধুরী সড়কের সাথে মিলিত হয়েছে। সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে । সড়কটি কয়েক দফে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের অর্থায়নে বিটুমিন কার্পেটিং এ কাজ করা হয় । সড়কের রাউজান মুন্সির ঘাটা থেকে উপজেলা সদরের রাউজান সাব রেজিষ্টার অফিস পর্যন্ত বৃষ্টির পানি জমে বিটুমিন কার্পেটিং উঠে গিয়ে বড় বড় গর্তেও সৃষ্টি হয়ে যানবাহন মুন্সির ঘাটা থেকে উপজেলা সদরের রাউজান সাব রেজিষ্টার অফিস পর্যন্ত বৃষ্টির পানি জমে বিটুমিন কার্পেটিং উঠে গিয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে । যতবারাই সড়কের বিটুমিন কার্পেটিং এর কাজ করা হয় বৃষ্টি হলে মুন্সির ঘাটা থেকে উপজেলা সদরের রাউজান সাব রেজিষ্টার অফিস পর্যন্ত বৃষ্টির পানি জমে বিটুমিন কার্পেটিং উঠে গিয়ে গর্ত সৃষ্টি হয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে উঠে । মুন্সির ঘাটা থেকে উপজেলা সদরের রাউজান সাব রেজিষ্টার অফিস পর্যন্ত বৃষ্টির পানি জমে বিটুমিন কার্পেটিং উঠে গিয়ে সড়কের গর্ত হওয়ার পর রাউজান পৌরসভা ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে মুন্সির ঘাটা থেকে উপজেলা রাউজান পৌরসভা ভবণ পর্যন্ত সড়কের নির্মান কাজের টেন্ডার আহবান করলে সঞ্জিতা এন্টার প্রাইজ নামে ঠিকাদারী প্রতিষ্টান সড়কের নির্মান কাজ নেয় টেন্ডারের মাধ্যমে । ঠিকাদারী প্রতিষ্টান সঞ্জিতা এন্টার প্রাইজ সড়কের নির্মান কাজ নিয়ে কাজ শুরু করার উদ্যোগ নিলে রাউজান থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী ঠিকাদার টিটু চৌধুরী ও রাউজান পৌর সভার কাউন্সিলর আজাদ হোসেন কে ডেকে মুন্সির ঘাটা থেকে উপজেলা সদরের রাউজান সাব রেজিষ্টার অফিস পর্যন্ত সড়কটি উচু করে লোহার রড দিয়ে ও সিমেন্ট দিয়ে ঢালাই করার নির্মান করার নির্দেশ প্রদান করার পর ঠিকাদার সড়কটি পুর্বের চেয়ে উচু করে সড়কের উপর বালু দিয়ে বালু রোলার দিয়ে চেপে দেওয়ার পর বালুর উপর পলিথিন বিছিয়ে, পলিথিনের উপর লোহার রড দিয়ে নেট বেধে সিমেন্ট দিয়ে য়ালাই করার মাধ্যমে সড়কের নির্মান কাজ করছেন । ঠিকাদার টিটু চৌধুরী জানান মাননীয় এমপি সাহেব পৌরসভার বরাদ্বকৃত টাকা ব্যতিত সড়কের নির্মান কাজে যে টাকা ব্যয় হবে তা এমপি সাহেব প্রদান করবে । রাউজান পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী রুমেল বড়–য়া জানান এমপি সাহেবের উপদেশ মোতাবেক লোহার রড ও সিমেন্ট দিয়ে সড়কের নির্মান কাজ করা হলে বৃষ্টির পানি জমে সড়কটি আর গর্ত হবেনা ।


আরোও সংবাদ