মোহরায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৩১ জুলাই , ২০১৪ সময় ০৯:৩১ অপরাহ্ণ

মোহরায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসীচট্টগ্রামের মোহরায় কথিত যুবলীগ নেতা নামধারী মিজানুর রহমান বাপ্পীর সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। সকাল থেকে মোহরার হাজার হাজার মানুষ কাজীর হাট এলাকায় মিছিল নিয়ে জড়ো হয়। তাদের অভিযোগ, বাপ্পী দীর্ঘদিন ধরে সরকারি দলের নাম ভাঙিয়ে সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজি ও মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছে। সর্বশেষ ঈদের দিনও চাঁদার জন্য কাজীর হাট বাজার কমিটির সভাপতি সাহাবুদ্দীনকে আটকে রাখায় বাপ্পীকে গণপিটুনিও দেয় স্থানীয় জনতা।
সকাল থেকে মোহরার কাজীর হাট এলাকায় জড়ো হতে থাকে হাজার হাজার স্থানীয় জনগন । মানববন্ধনে দাঁড়ানো হাতে হাত ধরা মানুষের লাইন পৌঁছায় কাপ্তাই রাস্তার মাথা পর্যন্ত। মোহরাবাসীর ব্যানারে বিক্ষুব্ধ মানুষ কথিত যুবলীগ নেতা মিজানুর রহমান বাপ্পীর বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকে।এলাকাবাসীর অভিযোগ, দিনের পর দিন সরকারি দলের নাম ভাঙিয়ে এলাকায় সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি আর মাদকব্যবসা করে যাচ্ছে বাপ্পী । এ সময় বিক্ষুদ্ধ জনতার আন্দোলনে শরীক হয়ে এলাকার ওয়ার্ড কাউন্সিলরসহ বিভিন্ন দলের নেতা কর্মীসহ সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজীর বিরুদ্ধে নিজেদের সোচ্চার অবস্থান জানান। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানও এসময় মানববন্ধনে একাত্মতা ঘোষনা করেন।ঈদের দিন চাঁদার দাবিতে এক ব্যবসায়ীকে আটকে রাখায় মিজানুর রহমানকে গণপিটুনি দেয় স্থানীয় জনতা। পরে, পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে আহত অবস্থায় হাসপাতালে পাঠায়। এ ছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা এরশাদ উল্লাহ, মালয়েশিয়া বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এর সভাপতি সৈয়দ নুরুল ইসরাম, ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: আজম, বাংলাদেশ মানবধিকার কমিশনের চট্টগ্রামের সা: সম্পাদক সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম কমু, স্থানীয় ব্যবসায়ী, আওয়ামীলীগ ও বিএনপি নেতৃবৃন্দ।