মোবাইল নম্বর ট্র্যাকিং করে অপহৃত শিশুকে ছয়দিন পর উদ্ধার

প্রকাশ:| সোমবার, ২ ফেব্রুয়ারি , ২০১৫ সময় ১০:৩৮ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম নগরী থেকে অপহৃত এক শিশুকে ছয়দিন পর উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার বিকালে বাঁশখালী উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নে তার খোঁজ পায় চান্দগাঁও পুলিশ।অপহরণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপজেলা থেকে জিয়াউল হক (২৯) ও মীর কাশেম আলী (৩৮) নামে দুজনকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত ফারিয়া আফরিন ঐশি (৫) চান্দগাঁও আবাসিক এলাকার ‘বি ব্লকের’ বাসিন্দা জাহেদ হোসেনের মেয়ে।

চান্দগাঁও থানার এসআই নুরুল ইসলাম বলেন, গত ২৭ জানুয়ারি ঐশিকে চকলেট খাওয়ানোর কথা বলে নিয়ে তার পরিবারের পূর্ব পরিচিত এক ব্যক্তি। এ ঘটনায় তার বাবা জাহেদ হোসেন চান্দগাঁও থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন।অপহরণের পর ঐশিকে কুতুবদিয়ায় নিয়ে এক ব্যক্তির কাছে ৫০ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। পরে ওই ব্যক্তি তাকে দুই লাখ টাকায় আরেকজনের নিকট বিক্রি করে।দুই লাখ টাকায় কেনার পর ওই ব্যক্তি ঐশিকে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার ছনুয়া ইউনিয়নে রহিমা ডাকাতের কাছে রেখে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে তার পরিবারের কাছে।

অপহরণকারীদের সাথে যোগাযোগ করে দেড় লাখ টাকা দুই দফায় বিকাশের মাধ্যমে পাঠানো হয়।পরে মোবাইল নম্বর ট্র্যাকিং করে শনিবার সকালে কুতুবদিয়া থেকে জিয়া ও রোববার বিকালে কাশেম আলীকে আটক করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত দুজনের তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার বিকালে বাঁশখালীর ছনুয়া থেকে ঐশিকে উদ্ধার করা হয়।পুরো অপহরণ ঘটনার সঙ্গে আট থেকে ১০ জন জড়িত ছিল জানিয়ে এসআই নুরুল ইসলাম অপহরণকারীদের ধরতে অভিযান চলছে বলে জানান।