মোঘল আমলের নানা খাবারের স্বাদ

প্রকাশ:| রবিবার, ২৩ আগস্ট , ২০১৫ সময় ১০:৪১ অপরাহ্ণ

মোঘল আমলের নানা খাবার আজও আমাদের পাতের বাহার বাড়ায়। তার রস আস্বাদনে উঠে তৃপ্তির ঢেকুর। আর মোঘলদের খাবারের মধ্যে কাবাব ছিল এক ব্যতিক্রমী এবং সুস্বাদৃ এক খাবার। এর নাম শুনলে জিভে জল আসে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কঠিন। আর মোঘলদের কল্যাণে বাঙালির ঝুলিতে বিভিন্ন স্বাদের কাবাবের কমতি নেই।

আজ যে কাবাবের কথা বলব, তা মূলত লাহোরের নবাবদের মধ্যে বেশি জনপ্রিয় ছিল। শুনতে অনেক জটিল মনে হলেও এর রেসিপিটি কিন্তু খুব সহজ। এই কাবাবের নাম কাকোরি কাবাব।

কাকোরি কাবাবের জন্য উপকরণ: ২ কাপ মাংসের কিমা (খাসি/মুরগি), ১ চা চামচ আদা-রসুন বাটা, ২ চা চামচ নুন, ১/৪ গোল মরিচ গুঁড়ো, ২ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি, ২ টেবিল চামচ কাঁচা পেঁপে বাটা, ৪ টি লবঙ্গ, ১টি এলাচের দানা, ১/৮ চা চামচ দারুচিনি গুঁড়ো, ১ চা চামচ জিরা, ১/৪ চা চামচ জায়ফল ও জয়ত্রী গুঁড়ো, ২ কাপ পেঁয়াজ ঘিয়ে ভাজা, ১/৪ কাপ ডাল বাটা, ১টি ডিম, ১/৪ চা চামচ কাবাব মসলা, ঘি (ব্রাশ করার জন্য)চেখে দেখুন লাহোরের 'কাকোরি' কাবাব

পদ্ধতি: ঘি ও ডিম বাদে বাকি সব উপকরণ একসঙ্গে একটি বড় বাটিতে নিয়ে মেখে নিন ভালো করে। ৪ ঘণ্টা মেখে রাখুন। – এরপর ডিম দিয়ে মাখিয়ে ফ্রিজে ঢাকনা দিয়ে রেখে দিন প্রায় ১ ঘণ্টা। – ফ্রিজ থেকে বের করে নিজের পছন্দমতো আকার দিন। যদি গ্রিল করতে চান তাহলে একটি ট্রে-তে সাজিয়ে নিন। যদি শিক করতে চান তাহলে শিকে ভালো করে লাগিয়ে নিন। যদি হাতে বানানো গোল কাবাব করতে চান তাহলে গোল কাবাব করে নিন। – এরপর ওভেনে ২২০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডে রান্না করুন। যদি ওভেনে না করতে চান তাহলে একটি ফ্রাইং প্যানে সাধারণ কাবাবের মতো করে কিন্তু খুব অল্প ঘিয়ে ভাজুন। চাইলে কয়লার আগুনেও ঝলসে নিতে পারেন। – মাঝে মাঝে উপরে ঘি ব্রাশ করে দিন এবং উল্টে সবদিক ভালো করে ভেজে নিন। – ব্যস, এরপর রুটি কিংবা পরোটা অথবা নান-রুটি দিয়ে সস বা সালাদ-সহ পরিবেশন করুন এবং গরম গরম মজা নিন লাহোরের সুস্বাদু ‘কাকোরি কাবাব’এর।


আরোও সংবাদ