মেয়রের নাম ব্যবহার করে মিথ্যাচার: উপাচার্যের কাছে অভিযোগ

প্রকাশ:| সোমবার, ২৭ জুন , ২০১৬ সময় ০৮:১৪ অপরাহ্ণ

অভিযোগ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ব্যবহার করে পরিচালিত একটি অনলাইনে শরীফুল ইসলাম ও রকিব কামাল নামে দুই শিক্ষার্থী চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের নাম ব্যবহার করে মিথ্যাচার করায় তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে উপাচার্যের কাছে অভিযোগ করেছে শিক্ষার্থীরা। এই অভিযোগপত্রে বিপ্লব পার্থ নামে এক বহিরাগত ব্যক্তির সংশ্লিষ্টতার কথাও বলা হয়েছে।

সোমবার এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তিনজনের নাম উল্লেখ্য করে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য বরাবরে অভিযোগ দিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরের মাধ্যমে তারা এ অভিযোগ জমা দেয়।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, চবি’র নাম ব্যবহান করে পরিচালিত একটি অনলাইন পত্রিকায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের নাম ব্যবহার করে মিথ্যা ও মানহানিকর মন্তব্য প্রচার করেছে। যা মেয়রের কাছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি নষ্ট করার একটি চক্রান্ত বলে অভিযোগকারীরা অভিযোগপত্রে উল্লেখ করে।

চবি’র নাম ব্যবহার করে পরিচালিত একটি অনলাইনের নাম উল্লেখ করে তার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি করেছেন তারা। অভিযোগপত্রে বলা হয়, যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী শরীফুল ইসলাম, রকিব কামালা ও বিপ্লব পার্থ নামে এক বহিরাগত অনলাইন পত্রিকাটি পরিচালনা করে আসছে। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, রেজিস্টার, প্রক্টরিয়াল বডির বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করে আসছে নিয়মিত। সম্প্রতি ওই অনলাইন পোর্টালে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিদের নাম ব্যবহার করে মিথ্যা তথ্য প্রচার করায় কর্তৃপক্ষ চবির নামে বিনা অনুমতিতে কোন ধরণের অনলাইন পোর্টাল, দৈনিক-সাপ্তাহিক-মাসিক পত্রিকা, ফেসবুক পেইজসহ যে কোন ধরণের প্রকাশনা নিষিদ্ধ ঘোষনা করেছে। কিন্তু এই নির্দেশনা না মেনে এই তিনজন অনলাইন পোর্টালের নামে অবৈধ কার্যক্রম পরিচালনা করছে।

তারা আরও অভিযোগ করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে এই অনলাইন পোর্টালে নানা মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করা হচ্ছে। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে কল্পনাপ্রসূত মিথ্যাচার করা হয় ওই অনলাইনে। ওই অনলাইনের প্রতিবেদক রকিব কামালের বিরুদ্ধে তারা ছাত্রশিবিরের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ততারও অভিযোগ তুলে। অভিযোগ পত্রে তারা বলেন, ‘রকিব কামালের বড় ভাই শাহ জালাল হল ছাত্রশিবিরের সভাপতি ছিলেন। শাহ জালাল হল শিবিরমুক্ত করার সময় মিজানুর রহমান ছাত্রলীগের কর্মী হিসেবে ভূমিকা রাখায় রকিব কামাল তার বিরুদ্ধে ওই অনলাইনকে ব্যবহার করে মিথ্যাচার করেছে।’

অভিযোগ প্রদানকারীরা হলো বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ সম্পাদক আব্দুল মালেক, সাবেক সদস্য তায়েফুল হক তপু, ইফতেখার উদ্দিন, ছাত্রলীগ নেতা রবিউল হোসেন রনি, তৌহিদুল ইসলাম জিমেল, তারেকুল ইসলাম।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর হেলাল উদ্দীন বলেন, “এ বিষয়ে একটি অভিযোগপত্র আমরা পেয়েছি, তদনÍ করে প্রশাসন ব্যবস্থা নিবে।”