মেধাবী শিক্ষার্থীরায় গড়বে শোষণমুক্ত সোনার বাংলা-জাবেদ

প্রকাশ:| শনিবার, ২৬ এপ্রিল , ২০১৪ সময় ১১:২৬ অপরাহ্ণ

ইমরান , আনোয়ারা।

জাবেদভুমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেছেন, আজকের মেধাবী শিশুরাই গড়বে শোষণমুক্ত সোনার বাংলা। এদের নিরন্তর জ্ঞান ও মেধা চর্চায় বাঙালী জাতিকে বিশ্বদরবারে আরো উঁচুতে আসীন করবে। এজন্য শিশুদের একাডেমীক শিক্ষার পাশাপাশি জিনিয়াস মেধাবৃত্তির মত বড় পরিসরে প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হওয়ার সুযোগ বাড়াতে হবে। গতকাল শনিবার (২৬ এপ্রিল) বেলা ৩টায় আনোয়ারা কলেজ রোডস্থ স্থানীয় একটি কমিউনিটি সেন্টারে জিনিয়াস মেধাবৃত্তি পুরস্কার প্রদান উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।
মন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, সমৃদ্ধশালী দেশ গড়তে বিকশিত মেধাবী শিশুর বিকল্প নেই। মেধা ও মনন বিকাশে অবাধ সুযোগ সৃষ্টিসহ শিশুদের অধিকার নিশ্চিত হলে প্রতিটি শিশুই যোগ্য নাগরিক হয়ে বেড়ে উঠবে। বর্তমান সরকার গুণগত শিক্ষা প্রসারে বিভিন্ন কার্যক্রম সফল বাস্তবায়ন করে চলেছে। এক্ষেত্রে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থার ভূমিকা প্রশংসার দাবি রাখে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করতে বহুমূখী প্রতিভার অধিকারী হয়ে দেশকে সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে নেয়ার জন্য তিনি সকল শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান।
অনুষ্ঠানের উদ্বোধক জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাসরিন সুলতানা বলেন, তুমূল প্রতিযোগিতামূলক ও প্রযুক্তি নির্ভর এ বিশ্বে টিকে থাকতে হলে মেধাবী ও দক্ষ নাগরিকের বিকল্প নেই। তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, মনে রাখতে হবে পৃথিবীতে যারা জ্ঞানী, মহাজ্ঞানী হয়েছেন তারা সবাই অনেক ত্যাগ, তিতিক্ষা স্বীকার করে বড় হয়েছেন। তোমাদেরকেও একদিন তাদের মতো দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান হতে হবে।
উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল হক চৌধুরী বলেন, শিক্ষা ছাড়া কোন জাতি উন্নতি করতে পারে না। তাই সরকার শিক্ষাকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে ঘরে ঘরে শিক্ষার আলো পৌঁছে দেয়ার যে ভিশন গ্রহণ করেছে তা সফল বাস্তবায়নে জিনিয়াস বাংলাদেশের মত বেসরকারি সংস্থাগুলো এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, কৃতিত্বে স্বীকৃতি সবাই দিতে পারে না। যারা এই মহতী উদ্যোগ নেন, তারা সাধুবাদ পাওয়ার যোগ্য।
দৈনিক সমকালের ডিজিএম সুজিত কুমার দাশ বলেন, শিশুরা অনেকটা কাঁদামাটির মত। যেভাবে গড়ে তুলবে, সেভাবেই বেড়ে ওঠবে। সঠিক পরিচর্যা ও মেধা বিকাশের সুযোগ সৃষ্টির মধ্য দিয়ে জাতির আগামী দিনের ভবিষ্যত শিশুদের যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।
জিনিয়াস চেয়ারম্যান ডা. সন্তোষ কুমার দে’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৃত্তিপ্রদান উৎসবে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জিনিয়াস পরিচালক সরোজ আহমেদ। সুশান্ত শীল সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন অ্যাডভোকেট সালাহউদ্দিন আহমদ চৌধুরী টিপু, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মহিউদ্দিন মুহাম্মদ আলমগীর, কাফকো স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মজিদ, অধ্যাপক কাজী গোলাম মোস্তফা, অধ্যাপক শেখ ফরিদ।
এছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি, আনোয়ারা শাখার সভাপতি কেএম এরশাদ হোসাইন, সহ-সভাপতি রূপন কান্তি শীল, মহানগর ৪ নম্বও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের মহিলা সম্পাদিকা তাহমিনা আক্তার চৌধুরী ফৌজিয়া, আনোয়ারা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. মোজাম্মেল হক, আনোয়ারা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এমএ কাইয়ূম শাহ প্রমূখ।
অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্ব আলোচনা সভা শেষে জিনিয়াস মেধাবৃত্তি পরীক্ষায় বিভিন্ন গ্রেডে উর্ত্তীণ ৩১৭ জন শিক্ষার্থীর হাতে নগদ অর্থ, ব্যাগ, বই, ক্রেস্ট, সনদসহ বিভিন্ন শিক্ষা উপকরণ তুলে দেন প্রধান অতিথি ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।
এর আগে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ওস্তাদ সংগীত শিল্পী উৎপল সেনের পরিচালনায় মুকাভিনয় ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন টিভি-বেতার শিল্পীরা।