মূল্যতালিকা না টাঙালে লাইসেন্স বাতিল

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৯ জুন , ২০১৪ সময় ০৮:১০ অপরাহ্ণ

image_96651_0সারাদেশের প্রতিটি দোকানে নিত্যপণ্যের সঠিক মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করলে ট্রেড লাইসেন্স বাতিল ও পণ্য বাজেয়াপ্ত করার ঘোষণা দিয়েছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

মন্ত্রণালয় থেকে বৃহস্পতিবার এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সারাদেশের প্রতিটি দোকানে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্যতালিকা সহজে দর্শনীয় স্থানে টাঙিয়ে রাখা, পণ্য ক্রয়-বিক্রয়ের পাকা রশিদ সরবরাহ এবং প্রতিটি পণ্য নির্ধারিত খুচরা মূল্যে বিক্রয় করতে হবে। ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান এ নির্দেশনা অমান্য করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণসহ ট্রেড লাইসেন্স অথবা নিবন্ধন সাময়িকভাবে বাতিল এবং পণ্য বাজেয়াপ্ত করা হবে। ঢাকাসহ সারাদেশে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর এবং প্রতিটি জেলা প্রশাসনের বাজার মনিটরিং টিম নিয়মিতভাবে এসব মূল্য তালিকা তদারকি করবে বলে নির্দেশনায় উল্লেখ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে এফবিসিসিআই সহ-সভাপতি এবং ঢাকা মহানগর দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন বাংলামেইলকে বলেন, ‘বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে তা আমি ভালোভাবে দেখছি। এতে ভোগ্যপণ্যের বাজারমূল্য স্থিতিশীল থাকবে। পণ্যের দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে পারবে না। এর ফলে দেশের কোনো অঞ্চলে পণ্যের দাম বাড়লে তা মনিটরিং করতে সহজ হবে। কোথাও দাম বাড়লে বোঝা যাবে কোথায় সমস্যা: এটাকি দোকানমালিক বা খুচরা ব্যবসায়ীরা বাড়িছে নাকি আড়ৎদারেরা বাড়িয়েছে। কারণ দাম বাড়ার পেছনে তারা একে অপরকে দায়ী করে থাকে।’

এতে করে পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষ্যে বাজারে নিত্য পণ্যের মজুদ স্বাভাবিক থাকবে বলেও তিনি আশা করেন।

এদিকে আসন্ন রমজান মাসকে কেন্দ্র করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিশেষ করে আদা, ছোলা, ডালের মজুদ, সরবরাহ ও মূল্য স্থিতিশীল রাখার বিষয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় গতকাল বুধবার সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেছে। বৈঠকে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মজুদ ও সরবরাহ স্বাভাবিক রয়েছে এবং আসন্ন রমজান উপলক্ষ্যে পণ্যের আমদানি চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি মজুদ রয়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

উল্লেখ্য, এর আগেও একাধিকবার বাজারে ও দোকানে পণ্য তালিকা টাঙানোর কড়াকড়ি নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল। কিন্তু তা কখনোই কার্যকর হয়নি এবং মনিটরিং টিমও কার্যকরভাবে এগুলো তদারকি করেনি।


আরোও সংবাদ