মুবিন নিখোঁজ, পরিবারে আহাজারী

প্রকাশ:| বুধবার, ১৯ আগস্ট , ২০১৫ সময় ০৮:৩২ অপরাহ্ণ

মুবিন

মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, পেকুয়া
লিবিয়া থেকে ইতালী যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরের ইতালী উপকূলে নৌকা ডুবির ঘটনায় কক্সবাজারের পেকুয়ার যুবক মুবিন নিখোঁজ রয়েছে বলে তার পরিবার সূত্রে জানা গেছে। গত ১৫ আগস্ট রাতে ইতালীর উপকূলে ভূমধ্যসাগরে প্রায় ৫’শ অভিবাসী নিয়ে একটি নৌকা ঢুবে যায়। এতে বিপুল সংখ্যক অভিবাসী মারা যায়। প্রায় ৪০জন অভিবাসীর মৃতদেহসহ কয়েকজনতে জীবত উদ্ধার করেছে ইতালির নৌবাহিনী। ভূমধ্যসাগরে ডুবে যাওয়া নৌকার যাত্রী ছিলেন পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের সাবেক গুলদি গ্রামের হাজী আবদু ছাত্তারের পুত্র লিবিয়া প্রবাসী মো. মুবিন (২২)। সে গত আড়াই বছর পূর্বে কাজের সন্ধানে বৈধভাবে লিবিয়া পাড়ি জমিয়েছিল।

মুবিনের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, লিবিয়ার বেনগাজি শহরে মুবিন একটি পেট্রোল পাম্পে চাকুরী করত। সেখানে রাজনৈতি পরিস্থিতি অশান্ত হওয়ায় সেখানকার দালালদের প্রলোভনে পড়ে মুবিন অন্যান্য অভিবাসীদের সাথে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইতালী যাওয়ার চেষ্টা করছিল। তবে উদ্ধারকৃত মৃতদেহের মধ্যে মুবিনের লাশ পাওয়া যায়নি বলে নিশ্চিত করেছে ইতালীতে অবস্থানরত কয়েকজন প্রবাসী।

আজ বুধবার (১৯ আগষ্ট) বিকালে সরেজমিনে মুবিনের বাড়ীতে গিয়ে দেখা গেছে, মুবিনের আত্মীয় স্বজনার তার বাড়ীতে ভিড় করছে। তার পিতা-মাতাকে আত্মীয়-স্বজনরা সান্ত্বনা দিচ্ছেন। পুত্রশোকে বারবার মূর্ছা যাচ্ছে মুবিনের পিতা আবদু ছাত্তার ও মা সাজেদা বেগম। এসময় তারা অজোর নয়নের কান্নাকাটি করছিলেন।

নিখোঁজ মুবিনের পিতা হাজী আবদু ছাত্তার কান্নাজড়িত কন্ঠে জানান, লিবিয়ায় অবস্থানরত কয়েকজন প্রবাসী তাকে ফোনে জানিয়েছেন, মুবিন লিবিয়া থেকে ইতালী যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরে নৌকা ডুবিতে নিখোঁজ রয়েছেন।