মুজিবনগর ডিগ্রী কলেজ এর সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৭ এপ্রিল , ২০১৮ সময় ১০:২৭ অপরাহ্ণ

 

মেহেরপুর জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ বলেছেন, মুজিবনগর সরকার গঠিত না হলে বাংলাদেশকে ৯ মাসে শত্রুমুক্ত করা সম্ভব হতো না। তিনি মুজিবনগর সরকারের গুরুত্ব ও অবদান তুলে ধরে বলেন, বর্তমান প্রজন্ম ও আগামী প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধ এর মূল্যবোধে শানিত করতে শিক্ষকদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। তিনি মুজিবনগর সরকারের মহামান্য রাষ্ট্রপতি, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রী পরিষদের সদস্যদের আত্মার সদগতি কামনা করেন। ১৭ এপ্রিল ২০১৮ খ্রি. মঙ্গলবার বিকেলে মুজিবনগর জাতীয় স্মৃতি সৌধে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি পরিষদের উদ্যোগে মেহেরেপুরস্থ মুজিবনগর সরকারি ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ স্বপন কুমার রায় ও ৫শত শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই বিতরণ এবং মুজিবনগর দিবস স্মরণে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষনে এ সব কথা বলেন। অত্র কলেজের অধ্যক্ষ ও সংবর্ধিত অতিথি স্বপন কুমার রায় এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রফেসর মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন, মো. জামাল উদ্দিন বিশ্বাস,গ্রন্থাগার মো. আহসান হাবীব।এতে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুর রহিম, সহ সভাপতি ডা. মো. জামালউদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. ফরিদুল আলম, জাবেদুল ইসলাম সিপন, মোহাম্মদ সেলিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আসিফ ইকবাল, সমাজসেবা সম্পাদক মো. শহীদুল ইসলাম সুমন, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক এস এম হুমায়ুন কবির আজাদ, উপ সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সওকত, উপগ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক রাশেদ মাহমুদ পিয়াস, উপ সমাজসেবা সম্পাদক মো. আজিম উদ্দিন, উপ পাঠাগার সম্পাদক সোহেল তাজ ও সদস্য মোহাম্মদ নওশাদ।
আলোচনা সভার সভাপতি মুজিবনগর ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ স্বপন কুমার রায় বলেন, সত্যকে মিথ্যা দিয়ে বেশী দিন ঢাকা যায় না। ১৯৭৫ থেকে ১৯৯৬ প্রায় ২১ বছর দেশে মিথ্যাচার হয়েছে। বর্তমানে সত্য ইতিহাস ফুটে উঠেছে। তিনি শিক্ষার্থীদের সত্য ইতিহাস ধারণ করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় জীবনগড়ার তাগাদা দেন। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুর রহিম বলেন, দেশপ্রেম ধারণ করে দরদি মনে দেশের ইতিহাস সর্বত্র ছড়িয়ে দিতে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি পরিষদ কাজ করছে। সে লক্ষে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণ করা হচ্ছে। পরে অধ্যক্ষ ও শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট, সনদ ও বঙ্গবন্ধু অসমাপ্ত আত্মজীবনী বই তুলে দেন প্রধান অতিথি।