মুক্তিযোদ্ধা সব তালিকা থেকে ভূয়া অপসারণের দাবি

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বুধবার, ১৬ মে , ২০১৮ সময় ০৯:১৮ অপরাহ্ণ

 

১৬ই মে বিকাল ৩টায় হোটেল শাহাজাহান আর্কেডের পলাশি পার্ক হলে চট্টগ্রাম মহানগর মুক্তিযোদ্ধাদের একসভা বীরমুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ হারিছ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাংবিধানিক স্বীকৃতি প্রদান এবং ২০১৭ সালের মুক্তিযোদ্ধ যাচাই বাছাই সর্ম্পূণ বাতিল সহ সঠিক ও স্বচ্ছ পদ্ধতির মাধ্যমে সব তালিকা থেকে ভুয়া অপসারনের দাবীতে চট্টগ্রাম মহানগরের ২১ সদস্য বিশিষ্ট একাত্তরের মুক্তিযোদ্ধা আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। উক্ত কমিটিতে বীরমুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ হারিছকে আহ্বায়ক, এস.এম মাহাবুব উল আলম ও জাহেদ আহমদকে যুগ্ম আহ্বায়ক এবং নুরউদ্দিন চৌধুরীকে সদস্য সচিব এর দায়িত্ব প্রদান করা হয়। উক্ত সভায় যুদ্ধকালিন গ্র“প কমান্ডার ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল্লাহ আল হারুন, আব্দুল গফুর একাত্তরের মুক্তিযোদ্ধা কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোজ্জাফর আহমদ, নুরুল হক বীর প্রতীক, ফজলুল হক ভূঁইয়া, অমলমিত্র, খলিল উল্লাহ সর্দার, জাহাঙ্গির আলম, সরোয়ার হোসেন, নৌকমান্ডো জিলানি চৌধুরী, মঞ্জু মিয়া, দেওয়ান মাকসুদ, আবুল কাসেম, ফারুক আহমদ, গোলাম মারুফ, স্বাধীনবাংলা বেতার শিল্পী সুঞ্জিত রায়, আবদুর নুর, মোঃ শফি, মুুকুল দাশ, সামছুল আলম, মোঃ রফিক এনায়েত আলী প্রমুখ। উল্লেখিত বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ বলেন ১৯৭১ সালে জাতীরপিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বলিষ্ঠ ও সুমহান নেতৃত্বে এবং দিক নির্দেশনায় আওয়ামী লীগের প্রবাসী সরকারের পরিচালনায় বাংলার সকল মানুষের দৃঢ় ঐক্যের শক্তি নিয়ে আমরা মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের যাবতীয় শৌর্য, বীর্য ত্যাগ ও বীরত্ব দিয়ে হানাদার পাকিস্তানী বাহিনীকে পরাজিত করে বিজয় ছিনিয়ে এনেছিলাম। সংবিধানের প্রস্তাবনায় দ্বিতীয় অনুুুুুুুচ্ছেদে আমাদের বীর জনগণকে জাতীয় মুক্তি সংগ্রামে আত্মনিয়োগ ও বীর শহীদদের প্রাণ উৎসর্গ করতে উদ্বুদ্ধ করেছিল বলে উল্লেখ আছে। কিন্তু বাংলাদেশের সংবিধানে সেই মুক্তিযুদ্ধের মুক্তিযোদ্ধা শব্দটি সংবিধানের কোথাও উল্লেখ নেই। তাহলে কি সমকালের ইতিহাস সংবিধানের কোথাও উল্লেখ নেই? তাহলে মহাকালের ইতিহাসে সংবিধানের প্রস্তাবনার আলোকে মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তিযোদ্ধা শব্দদ্বয় কি বিলীন হয়ে যাবে?
ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের প্রসঙ্গে বক্তাগণ বলেন, ২০১৭ সালের ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের দ্বারা ও অর্থের বিনিময়ে যাচাই বাছাই সম্পূর্ণ বাতিল করে সর্বজন গ্রহণযোগ্য একটি উ


আরোও সংবাদ