মুক্তিযুদ্ধ হঠাৎ করে আসেনি – শিরীন আকতার

প্রকাশ:| বুধবার, ২১ ডিসেম্বর , ২০১৬ সময় ০৯:২০ অপরাহ্ণ

 

বোয়ালখালী প্রতিনিধি:
………………………
জাতীয় সমাজ তান্ত্রিক দল (জাসদ) কেন্দ্রীয় কমিটি সাধারণ সম্পাদক শিরীন আকতার এমপি বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধ হঠাৎ করে আসেনি। হঠাৎ করে কেউ ঘোষণাও করেননি। হঠাৎ করে এদেশ পাওয়া যায়নি। পরতে পরতে রক্ত দিতে হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য শেখ হাসিনাকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। ঐক্যবদ্ধভাবে হাতে হাত মিলিয়ে সবাইকে কাজ করতে হবে। দেশ তিনটি কারণে এগিয়ে যাচ্ছে কৃষি, পোশাকশিল্প ও অভিবাসীদের কষ্টার্জিত রেমিন্টেসের মাধ্যমে।

গোমদন্ডী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বোয়ালখালী মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদ আয়োজিত মেলার পঞ্চম দিন বুধবার (২১ডিসেম্বর) রাতে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, হরতালের নামে মানুষকে পুড়িয়ে মারলেন। লক্ষ লক্ষ টাকা সম্পদ নস্ট করলেন। সারাদেশ তছনছ করে দিলেন। ঢাকার বার্ন ইউনিটে মানুষ পোড়া গন্ধ। মানুষ মেনে নেয়নি হরতাল। সেই খালেদা জিয়া আবার নির্বাচনে আসার পাঁয়তারা করছেন।

এমপি বলেন, খালেদা জিয়া রাষ্ট্রপতি কাছে গেলেন। তিনি কি মানবেন রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্ত। নাকি আলোচনা চলতেই থাকবে চলতেই থাকবেন। বিজ্ঞাপণের সংলাপের মতো ‘হাত ধুতেই থাক ধুতেই থাক।’ এদিকে সংবিধানের যে সময় তা ফুরিয়ে যাবে তবু তার আলোচনা শেষ হবে না। তিনি চান এভাবে অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করে অসাংবিধানিক সরকার গঠন করা। খালেদার জিয়ার হাতে মানুষের রক্ত। তাকে জনগণের কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। তবুও তার ক্ষমা নেই। বিচার হবে, করতে হবে। দেশে সংবিধানের বাইরে চলতে দেয়া হবে। জনগণ তা দেবে না।

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল আলমের সঞ্চালনায় ও ইউপি চেয়ারম্যান শামসুল আলমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি’র বক্তব্য রাখেন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ, জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবুল, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরী, সাধারণ জহিরুল আলম জাহাঙ্গীর, মেলা কমিটির চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুল কাদের, মহাসচিব শাহনেওয়াজ হায়দার শাহীন, উপজেলা জাসদ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আজিম উদ্দিন, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান মন্টু, আওয়ামীলীগ নেতা আবদুর রউফ, সৈয়দ মেজবাহ উদ্দীন পাপ্পু, বাদশা মিঞা-মরিয়াম ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মো. মুছা চৌধুরী, পৌর কাউন্সিলর শামীম আরা বেগম, আরিফ উদ্দীন জুয়েল, ছাত্রলীগ নেতা মোসলেম উদ্দীন,উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুল মোনাফ মহিন।

সভার আগে আবৃত্তি শিল্পী এডভোকেট মিলি চৌধুরী বীরাঙ্গনা কবিতা আবৃত্তি করে শোনান। সভাশেষে সংগীত শিল্পী পলি শারমিন ও মহিন এর মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।


আরোও সংবাদ