মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে ইসলামের সমন্বয়কারী প্রথম সংগঠন ইসলামী ফ্রন্ট

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৭ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:৪২ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টবাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ও বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা হাটহাজারী উপজেলার যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত প্রতিনিধি সম্মেলনে বক্তাগণ বলেন- ১৯৯০ সালের ২১ ডিসেম্বর বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট প্রতিষ্ঠিত হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে ইসলামের সমন্বয়কারী প্রথম সংগঠন হিসাবে। সে থেকে এ দেশের ইসলামের উদার সুফীবাদী সুন্নী দর্শনের মাধ্যমে এ সংগঠন উগ্র সন্ত্রাসী জঙ্গীবাদীদের বিরুদ্ধে আদর্শিক প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে। আগামী নির্বাচনে হেফাজতী জঙ্গীবাদীদের বিপরীতে ইসলামের আসল চেহেরা তুলে ধরতে সুন্নীয়তের প্রতিনিধিকে মোমবাতি প্রতীকে ভোট দিন। বক্তাগণ আরো বলেন- দূর্নীতিবাজ ও কালো টাকার মালিকদের আগামী নির্বাচনে প্রত্যাখ্যান করা না হলে তারা দ্বিগুন উৎসাহে দূর্নীতির মহোৎসবে মিলিত হবে। আর এর অর্নিবার্য ফল স্বরুপ দেশ আবারও দুর্নীতিতে বিশ্বচ্যাম্পিয়ান হয়ে আমাদের সকলকে অপমানিত করবে। বক্তাগণ বলেন- আগামী নির্বাচনে কোন কোন জোট ক্ষমতায় যাবে তা নিশ্চিত না হলেও জঙ্গীবাদীদের ক্ষমতায় থাকা নিশ্চিত হয়েগেছে। আর এ মহাপরিকল্পনার অংশ হিসাবে তাদের একটি অংশ মহাজোটে এবং অপর বড় অংশ ১৮ দলীয় জোটের সঙ্গে রয়েছে। বাতিলদের এই কৌশল প্রতিহত করতে আগামী নির্বাচনে মোমবাতিকে বেচে নিতে সর্বস্থরের জনগণের প্রতি বক্তাগণ আহ্বান জানান। শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ও বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার প্রতিনিধি সম্মেলন জেবল মার্কেটস্থ দলীয় কার্যালয়ে সংগঠনের সহ-সভাপতি মৌলানা সৈয়দ মুনিরুর রহমানের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ সাকুর মিয়ার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট’র আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মোহাম্মদ আবু আজম, প্রধান বক্তাহিসাবে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি ছাত্রনেতা মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন। এতে অন্যাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ মৌলানা তৈয়ব আলী, অধ্যাপক মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, আলহাজ্ব দিদারুল আলম চৌধুরী, আলহাজ্ব মোহাম্মদ হারুন, এডভোকেট সৈয়দ মোহাম্মদ শাহ জামান, মৌলানা সৈয়দ নুরুল আনোয়ার, মোহাম্মদ আবুল মনছুর, কাযী মোহাম্মদ আবুল করিম, মৌলানা মোহাম্মদ ইব্রাহীম, মোহাম্মদ সেকান্দর হোসেন, মৌলানা সৈয়দ আবু তালেব, মোহাম্মদ এজাহার মিয়া মানিক, ডাঃ মোহাম্মদ জহুর আলম, মৌলানা মোহাম্মদ আবদুল মালেক, আলহাজ্ব কামাল পাশা চৌধুরী, আলহাজ্ব মৌলানা হাছানুল করিম চৌধুরী, মারুফ আহমেদ তালুকদার, মোহাম্মদ আলউদ্দিন চৌধুরী, আলহাজ্ব মৌলানা ইউনুছ হেলালী,সৈয়দ গোলাম মওলা, মোহাম্মদ অছি উদ্দিন, মোহাম্মদ ফরিদুল আলম, মোহাম্মদ সরওয়ার উদ্দিন চৌধুরী, মোহাম্মদ ফারুক চৌধুরী, মোহাম্মদ বেলাল হোসেন প্রমুখ।


আরোও সংবাদ