মীর কাসেমের রায় দ্রুত কার্যকর করার দাবি

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৩০ আগস্ট , ২০১৬ সময় ১০:২৭ অপরাহ্ণ

যবমঞ্চকুখ্যাত রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধী মীর কাসেম আলীর ফাঁসির রায় বহাল রাখায় সন্তোষ প্রকাশ করে এই তার ফাঁসি খুব দ্রুত কার্যকর করার দাবি জানিয়েছে জঙ্গি প্রতিরোধ যুবমঞ্চ চট্টগ্রামের নেতারা।

এ উপলক্ষে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘৭১ এর চেতনা কখনো পরাজয় মানে না। রাজাকারের একে একে ফাঁসি হওয়ায় স্বাধীনতাবিরোধী শক্তির দোসররা খোলস পাল্টে জঙ্গি রূপ ধারণ করেছে। এদেশে এখন জঙ্গিবিরোধী চেতনা গড়ে উঠেছে। রাজাকার আলবদরদের যেভাবে ফাঁসি হচ্ছে তেমনি ভাবে তাদের আদর্শে বিশ্বাসীরাও নব প্রজন্মের কাছে পরাজিত হবে।’

তারা বলেন, ‘মীর কাসেম আলী স্বাধীনতাবিরোধীদের পৃষ্ঠপোষকতায় যে অগাধ সম্পদ গড়েছেন তা রাষ্ট্রয়ীত্ব করতে হবে। এমন ঘৃণ্য রাজাকারদের এদেশে কবর দেওয়াও উচিত নয়। তাতে আমাদের সোনার বাংলার মাটি অপবিত্র হবে।’

নগর যুবলীগের সদস্য নেছার আহমেদের সভাপতিত্বে ও শেখ নাছির আহম্মদের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ সংসদ কমান্ড চট্টগ্রাম মহানগরের আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা মোজাফর আহমদ।

সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের সদস্য মুক্তিযোদ্ধা অমল মিত্র, প্রধান বক্তা ছিলেন নগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ফরিদ মাহমুদ।

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন নগর যুবলীগের সদস্য তৌহিদ আজিজ, মো. ইব্রাহিম, হোসেন সরওয়াদ্দী, আশরাফুল গণি চৌধুরী, নগর যুবলীগের সাবেক শ্রম ও কর্মসংস্থান সম্পাদক বখতেয়ার ফারুক, ১৯ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ আলম, মুক্তিযুদ্ধ সংসদ সন্তান কমান্ড কেন্দ্রীয় সদস্য সরওয়ার আলম মনি, নগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শাহেদ মুরাদ শাকু, এম কে আলম বাসেত, আবদুল হান্নান, নগর যুবলীগ নেতা এন মো. রনি, আমিরুল ইসলাম শাহনুর, এস কে বশির আহমদ, মিজানুর রহমান শিশির, নুরুল আমিন মানিক, মো. গোলাম মোস্তফা, মো. কালিম শেখ, নগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নাজমুল হাসান রুমি, শহীদুল ইসলাম শহীদ, মো. জাবেদ হোসেন, দেলোয়ার হোসেন সুমন, জহির উদ্দিন সুমন, ইয়াছিন ভূঁইয়া, কার্তিক রঞ্জন শীল টিটু, ২১নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা ইকবাল আহমেদ, নুরুল আনোয়ার রিপন, রাশেদ খান, হাবিব খান, জাহেদ মিয়া, মো. মুন্না, ৬নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের নেতা দেলোয়ার হোসেন, এম আর কামরুল, মনজুরুল ইসলাম রেমু, আশরাফুল ইসলাম সিদ্দিকী, মাহবুব আলম রাকিব, মো. ইউনুছ, আল আরাফাত, রতন দাশ, দীপন কান্তি নাথ, মো. ফারুক।

সমাবেশ শেষে মীর কাশেমের দ্রুত ফাঁসি কার্যকর করার দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে রাইফেল ক্লাব হয়ে নিউ মার্কেটের মোড়, দারুল মার্কেট কার্যালয় হয়ে পুনরায় শহীদ মিনারে এসে শেষ হয়।


আরোও সংবাদ