মীরসরাইয়ে যুবক হত্যায় পিতা-পুত্রের যাবজ্জীবন

প্রকাশ:| সোমবার, ৮ জুলাই , ২০১৩ সময় ০৫:৫০ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ে এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করায় তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার দুপুরে karadondo...চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ মো. আবদুল কুদ্দুস ভুঁইয়া এ রায় দেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন সৈয়দ আহমদ (৬৫) ও তার দু’ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩৫) ও দিদারুল আলম (৩০)। কারাদন্ডের পাশাপাশি তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে এবং অনাদায়ে এক বছরের কারাদন্ড দেওয়া হযেছে।

চট্টগ্রাম জেলা পাবলিক প্রসিকিউটর আবুল হাশেম বাংলানিউজকে বলেন, ‘দন্ডবিধির ৩০২/৩৪ ধারায় আসামীদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ রাষ্ট্রপক্ষ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে পারায় আদালত তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছেন।’

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৬ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি মিরসরাইয়ের কাঁটাগাঙ গ্রামে চায়ের দোকানে বসে আড্ডা দিচ্ছিলেন মো. সারোয়ার হোসেন প্রকাশ সোহরাব। এসময় পূর্ব শুত্রুতার জের ধরে আসামী সৈয়দ আহমদ এবং তার দু’পুত্র জাহাঙ্গীর আলম ও দিদারুল আলম লোহার রড ও লাঠি নিয়ে সোহরাবের উপর হামলা চালায়। এসময় হামলাকারীরা সোহরাবকে বেধম মারধর করে।

গুরুতর আহত অবস্থায় ওইদিনই সোহরাবকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরের দিন ২০ ফেব্রুয়ারি ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় তার পিতা আলী হোসেন বাদী হয়ে মীরসরাই থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মীরসরাই থানা পুলিশ ২০০৬ সালের ১১ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে। জেলা ও দায়রা জজ আদালত ২০১০ সালের ৩১ জানুয়ারি আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

মামলার নয়জনের সাক্ষীর সাক্ষ্যের ভিত্তিতে এ রায় দেওয়া হয়েছে বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে।

রায় ঘোষণার পর আদালতে উপস্থিত সৈয়দ আহমদকে কারাগারে পাঠানো হয়। অপর দু’আসামী ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন।