‘মিয়া ফারুকীর’ অবদান স্বরণীয় হয়ে থাকবে’

প্রকাশ:| শনিবার, ২৭ আগস্ট , ২০১৬ সময় ১০:৪৪ অপরাহ্ণ

মিয়া ফারুকীর শোকসভাপটিয়া প্রতিনিধি॥
পটিয়ার সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সামশুল হক চৌধুরী বলেছেন, মিয়া আবু মোহাম্মদ ফারুকী ছিলেন একজন ত্যাগী, নির্লোভী ও দেশ প্রেমিক রাজনীতিবিদ। আ’লীগ ও বঙ্গবন্ধুর কর্মকান্ড চট্টগ্রাম জেলাসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে দিতে ‘মিয়া ফারুকী’ যে অবদান রেখে গেছেন তা আওয়ামীলীগসহ তার অঙ্গসংগঠনের কাছে আজীবন স্মরণীয় হয়ে থাকবে। মিয়া ফারুকী ছিলেন একজন সাদা মনের মানুষ। তাই নানা প্রকার রাজনৈতিক সুযোগ সুবিধা থাকার পরও তিনি নিজের বা পরিবারের জন্য কোন অবৈধ সুযোগ সুবিধা গ্রহণ করেন নি। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ট সহচর এ মিয়া ফারুকী ১৯৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধকালে মুক্তিযোদ্ধাদের সুসংগঠিত করে দেশ স্বাধীনের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন। তার সান্নিধ্যে চট্টগ্রাম জেলার আ’লীগের অনেক নামীদামী নেতা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তিনি শুধুমাত্র একজন রাজনীতিবিদ নয়, তিনি একাধারে একজন লেখক, সাহিত্যিক ও সমাজকর্মী ছিলেন। দেশ ও জনসেবা করতে গিয়ে তার পরিবারের প্রতিও তিনি খেয়াল রাখেননি। তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের সুসংগঠিত করতে গিয়ে অনেক সময় তার পৈত্রিক সম্পদ বিক্রি করতে দ্বিধাবোধ করেননি। চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লায় ‘চট্টল লাইব্রেরী’ ছিল তার ব্যবসা প্রতিষ্টানের নামে আ’লীগের অঘোষিত একটি অফিস। চট্টগ্রামের বিশিষ্ট আ’লীগ নেতা এম এ আজিজ ও জহুর আহমদ চৌধুরী মিয়া ফারুকীর মিয়া ফারুকীর একজন সহযোদ্ধা ছিলেন। তিনি শনিবার বিকেলে পটিয়া চক্রশালা কমলমুন্সির হাট চত্বরে কচুয়াই ইউনিয়ন আ’লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহিলা আ’লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত মরহুম জননেতা মিয়া আবু মোহাম্মদ ফারুকী’র নাগরিক শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
প্রধান অতিথি সামশুল হক চৌধুরী এমপি মিয়া আবু মোহাম্মদ ফারুকী’র নামে একটি লাইব্রেরী ও কচুয়াই ইউনিয়নে তার নামে একটি সড়কের নামকরণ ও এলাকায় একটি মুরাল স্থাপনের ঘোষণা দেন।
কচুয়াই ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মোহাম্মদ শহিদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উৎপল সরকার রাজু’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত শোক সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পটিয়া উপজেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সামশুদ্দীন আহমদ, দক্ষিণ জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি নুরুল হাকিম, মিয়া ফারুকীর বড় ছেলে আন্তর্জাতিক পুরস্কারপ্রাপ্ত ফটোগ্রাফার শোয়েব ফারুকী, দৈনিক পূর্বকোণ’র মফস্বল সম্পাদক পারভেজ ফারুকী, কচুয়াই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল খালেক, কচুয়াই ফারুকীয়া সমাজ কল্যাণ সংস্থার সভাপতি আবদুল জব্বার ফারুকী, খরনা ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান, কচুয়াই ইউনিয়ন আ’লীগ সাবেক সভাপতি ঋৃষি বিশ্বাস, খরনা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি সামশুল আলম, জঙ্গলখাইন ইউপি চেয়ারম্যান গাজী মোহাম্মদ ইদ্রিস, উপজেলা আ’লীগ নেতা আবু ছালেহ চৌধুরী, মুর্তাজা কামাল মুন্সি, এম এ এজাজ চৌধুরী, রতন কাস্তগীর, উপজেলা মহিলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদিকা সাজেদা বেগম, যুবলীগ নেতা নাছির উদ্দীন, এনামুল হক মজুমদার, ইউপি সদস্য শাহেদ ফারুকী, মোহাম্মদ শাহজাহান, মো: এরশাদ, ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম, মো: জাফর, ফেরদৌস, জুয়েল, উপজেলা ছাত্রলীগের সেক্রেটারী মো: সোহেল।