মিষ্টি কুমড়ার জাদু !!

mirza imtiaz প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৪ সেপ্টেম্বর , ২০১৮ সময় ০১:০৮ অপরাহ্ণ

 

বহু রকমের তরকারি থেকে শুরু করে সুস্বাদু কেক-সবই বানানো যায় মিষ্টি কুমড়ার ব্যবহারে। বছরজুড়ে বাজারে মেলে দারুণ এই সবজি। মজার এই সবজি স্বাস্থ্যকরও বটে। আমেরিকার একাডেমি অব নিউট্রিশন অ্যান্ড ডায়াটেটিকসের মুখপাত্র এবং ফিটনেস স্পেশালিস্ট জিম হোয়াইট মিষ্টি কুমড়াকে এক বিস্ময়কর সবজি বলে তুলে ধরেছেন। এখানে জেনে নিন অতি পরিচিত এই কুমড়া সম্পর্কে সাতটি স্বাস্থ্যকথা।

১. উচ্চমাত্রার ফাইবার এবং নিম্নমাত্রার ক্যালরি : এসব বৈশিষ্ট্যসমৃদ্ধ যেকোনো খাবার খুবই স্বাস্থ্যকর। এটা এমন এক খাবার যা নিয়মিত খেলে ক্যালরি ও ওজন দুটিই কমে আসবে। তিন গ্রাম ফাইবারের সঙ্গে ৫০ ক্যালোরি মিলবে মাত্র এক কাপ মিষ্টি কুমড়ায়।

২. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট : এক শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বিটা ক্যারোটিন। মিষ্টি কুমড়ার অদ্ভুত উজ্জ্বল কমলা বা লালাভ রঙের কারণ এই বিটা ক্যারোটিন। এটি ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়ে বলে জানায় আমেরিকার ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউট। ক্যান্সারে আক্রান্ত হতে পারে এমন কোষগুলো ধ্বংসেও কাজ করে মিষ্টি কুমড়ার উপাদান।

৩. তারুণ্যে ভরা ত্বক ও পরিষ্কার দৃষ্টিশক্তি : বিটা ক্যারোটিন দেহের তারুণ্য ধরে রাখে। বয়স কম রাখতে এই উপাদানটি জাদুর মতো কাজ করে। চেহারার বলিরেখাও দূর করে মিষ্টি কুমড়া। পাশাপাশি চোখের পরিষ্কার দৃষ্টিশক্তির জন্য প্রয়োজন ভিটামিন ‘এ’। প্রতিদিন যে পরিমাণ ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা, এক কাপ মিষ্টি কুমড়ায় এর দ্বিগুণ ভিটামিন থাকে।

৪. ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য : অনেক বিশেষজ্ঞের মতে, ডায়াবেটিস কমিয়ে আনে মিষ্টি কুমড়া। এটি খেলে দেহে ইনসুলিনের মাত্রা বৃদ্ধি পায়।

৫. খনিজপূর্ণ বীজ : মিষ্টি কুমড়ার বিচিগুলোও ফেলে দেওয়ার নয়। এগুলোতে রয়েছে ভিটামিন ‘এ’, ভিটামিন ‘বি’ (থায়ামিন ও রিবোফ্লাভিন), ভিটামিন ‘সি’, ভিটামিন ‘কে’, নিয়াসিন, ক্যালসিয়াম, আয়রন, ফসফরাস ও প্রোটিন। আরো আছে ম্যাগনেশিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, জিংক, পটাশিয়াম ও কপার। পলি ও মনো আনস্যাচুরেটেড ফ্যাটও মিলবে এতে। বিচি যেকোনো খাবারে ব্যবহার করা যায়। ভেজে খেতেও বেশ ভালো।

৬. ক্ষতিকর কোলেসটেরল কমায় : দেহের জন্য ক্ষতিকর এলডিএল (লো ডেনসিটি লিপোপ্রোটিন) কোলেস্টেরল। মিষ্টি কুমড়ার ফাইটোস্টেরল নামের উপাদান দেহ থেকে এলডিএল কোলেস্টেরল বের করে দেয়। এর বিচিতেও একই উপকার মেলে।

৭. সুখকর গভীর ঘুম : মিষ্টি কুমড়া ও এর বীজে রয়েছে ট্রিপটোফান, যা মেলাটোনিন হরমোনের ক্ষরণ বৃদ্ধি করে। গভীর ও স্বাস্থ্যকর ঘুম আনে এই হরমোন।