মিঠুনকে রাজ্যসভায় প্রার্থী করায় উচ্ছ্বসিত টলিউড

প্রকাশ:| সোমবার, ২০ জানুয়ারি , ২০১৪ সময় ১১:০৬ অপরাহ্ণ

অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীকে সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থী করায় উচ্ছ্বসিত টালিগঞ্জের স্টুডিও মহলের সবাই। টলিউডের সবার ধারণা, মিঠুন রাজ্যসভায় গেলে বাংলার চলচ্চিত্র শিল্পের জন্য অনেক কাজ করতে পারবেন। আর এজন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ দিয়েছেন সবাই। এদের মতে, বাংলা চলচ্চিত্র জগৎ নিয়ে ইতিপূর্বে অনেক আলোচনা হলেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাড়া আর কেউই টলিউডকে এভাবে মর্যাদার আসনে বসাননি। তাপস পাল, শতাব্দী রায়কে ইতিমধ্যেই লোকসভায় পাঠিয়েছেন মমতা। এবার মিঠুনকে রাজ্যসভায় পাঠাতে উদ্যোগী হয়েছেন তিনিই। টলিউড-বলিউডে সমান জনপ্রিয় মিঠুনকে রাজ্যসভার জন্য বেছে নেয়াকে খুবই কুশলী সিদ্ধান্ত হিসেবে মনে করছে শিল্পীমহল। বর্ষীয়ান অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক তার প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, খুব আনন্দ হচ্ছে। মিঠুন অত্যন্ত বুদ্ধিমান এবং দক্ষ। আমি নিশ্চিত ও ভাল কাজ করবে। বাংলার জন্য ও বরাবরই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। রাজ্যসভাতে গিয়েও সেই ভূমিকা পালন করবে, এ নিয়ে আমার কোন সংশয় নেই। পরিচালক হরনাথ চক্রবর্তী বলেন, মিঠুনদা ভাল সোশ্যাল ওয়ার্কার। শুধু বাংলার জন্য নয়, সর্বত্রই নানা ধরনের সমাজসেবামূলক কাজ করেন। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী তাকে একটা সম্মান দিয়েছেন। দিদি তো একই লড়াই করে যাচ্ছেন। মিঠুনদা তার পাশে থেকে ভাল পরামর্শ ও নানা রকম সাহায্য করতে পারবেন বলেই মনে হয়। উচ্ছ্বসিত অভিনেতা তাপস পাল ও শতাব্দী রায়ও। মিঠুনকে রাজ্যসভায় পাঠানোর জন্য বাম আমলেও একবার উদ্যোগী হয়েছিলেন সুভাষ চক্রবর্তী। কিন্তু সিপিআইএম নেতৃত্বের আপত্তির কারণে তা সম্ভব হয়নি। তবে এবার মিঠুনকে রাজি করাতে মমতার শচীন টেন্ডুলকারের উদাহরণ টানতে হয়েছিল। মিঠুন তারপরই সম্মতি দিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, তাকে এই স্বীকৃতি দেয়ার জন্য তিনি মমতার কাছে কৃতজ্ঞ।