‘‘মাহাবুব চেয়ারম্যান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শানিত অকুতোভয় যোদ্ধা’’

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শনিবার, ৮ সেপ্টেম্বর , ২০১৮ সময় ১০:৪১ অপরাহ্ণ

‘মাহাবুব চেয়ারম্যান ছিলেন স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শানিত অকুতোভয় যোদ্ধা। অসাম্প্রদায়িকতার মননে মননশীল, বাঙালি সত্তার প্রতি নিবিষ্টচিত্ত দেশপ্রেমিক হিসেবে তিনি ছিলেন মৌলবাদ, জঙ্গিবাদ ও ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে সোচ্চার।’

শনিবার (০৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ষাট দশকের ছাত্রনেতা, রাঙ্গুনিয়ার পদুয়া ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মাহাবুব আলম চৌধুরীর মৃত্যুতে নাগরিক শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এসব কথা বলেন।

চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত সভায় ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, উদারপ্রাণ চরিত্রের অধিকারী সর্বমহলে গ্রহণযোগ্য আলোকিত পুরুষ ছিলেন মাহাবুব আলম চৌধুরী। একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে দেশের অভ্যন্তরে ট্রেনিং ক্যাম্প স্থাপন ও মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে নিয়ে সশস্ত্র প্রতিরোধ যুদ্ধে অংশ নেওয়া ও শরণার্থীদের থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিলেন তিনি। মাহাবুব চেয়ারম্যানের সাহসী ভূমিকা অবিস্মরণীয় হয়ে থাকবে। পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড পরবর্তী দুঃসময়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতি এগিয়ে নিতে তিনি জীবনবাজি রেখে লড়াই করেছেন। নীতি ও আদর্শের প্রশ্নে আমৃত্যু আপোষহীন ছিলেন তিনি।

চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এম এ সালাম, বলেন, আল্লাহর সৃষ্টির সেরাজীব মানুষের কল্যাণে কাজ করাই বড় ইবাদত; মাহাবুব চেয়ারম্যান সেই কাজটিই আমৃত্যু করে গেছেন। এলাকার সার্বিক উন্নয়ন ও মানুষের কল্যাণে কাজ করাই ছিল তার জীবনের ব্রত। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠাই ছিল তার জীবনের রাজনীতির দর্শন।

নগরের চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ মিলনায়তনে সংগঠনের জেলা সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম মন্টুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি অধ্যাপক মো. মঈনুদ্দিন, চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র বিশ্বাস, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বোরহান উদ্দিন এমরান, উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা জসিম উদ্দিন শাহ, শেখ আতাউর রহমান, অ্যাডভোকেট বি.কে বিশ্বাস, অধ্যাপক ড. রাশেদুল আলম, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা মো. সেলিম উদ্দিন, জেলা পরিষদ সদস্য দিলোয়ারা ইউসুফ, সাতকানিয়ার পৌর মেয়র মো. জোবায়ের, সিডিএ’র বোর্ড মেম্বার কেবিএম শাহজাহান, অ্যাডভোকেট বাসন্তী পালিত, সৈয়দা রিফাত আক্তার নিশু।

সভায় শোক প্রস্তাব পাঠ করেন সংগঠনের নারী বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সাইফুন্নাহার খুশি।

বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা ফজল আহমদ, হাজী আবু বক্কর সিদ্দিকী, ফোরকান উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা গৌরি শংকর চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, মুক্তিযোদ্ধা খায়ের আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা লুৎফর রহমান, মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউদ্দিন মাহমুদ, মুক্তিযোদ্ধা লেয়াকত হোসেন, কেন্দ্রীয় ন্যাপ নেতা মিটুল দাশগুপ্ত, সংগঠনের জেলা ও মহানগর নেতা সেলিম চৌধুরী, আব্দুল মালেক খান, শাহেদ মুরাদ শাকু, জসিম উদ্দিন, ইঞ্জি. পলাশ বড়ুয়া, মনোয়ার জাহান মনি, পংকজ রায়, নুরুল হুদা চৌধুরী, প্রয়াতের ছেলে ও উত্তর জেলা আওয়ামী লীগ নেতা বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার প্রমুখ।


আরোও সংবাদ