অতিরিক্ত ফি ফেরত দিতে বাধ্য করবে ছাত্রলীগ

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি , ২০১৬ সময় ১১:০৩ অপরাহ্ণ

ছাত্রলীগনগরীর স্কুলগুলোর জন্যে নির্ধারিত তিন হাজার টাকার বেশি ভর্তি ফি, বর্ধিত মাসিক ফি, পুনর্ভর্তি ফি, উন্নয়ন ফিসহ বিভিন্ন নামে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে আদায় করা অর্থ ফেরত না দিলে ছাত্রলীগ বাধ্য করবে ফেরত দিতে।

মঙ্গলবার নগর ছাত্রলীগ সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি এক বিবৃতিতে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।

তারা বলেন, শেখ হাসিনা সরকার বহু প্রত্যাশিত বেসরকারি স্কুল ভর্তি নীতিমালা প্রণয়ন করেছে। কিন্তু ভাবতে অবাক লাগছে নগরীর বেসরকারি স্কুলগুলো এই নীতির তোয়াক্কা না করে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায় করছে। স্বনামধন্য স্কুলগুলোও আজ ঘৃণ্য ব্যবসায়িক মানসিকতায় এ টাকা লোপাটে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। শিক্ষা সেবা নামে পবিত্র এই সেবা প্রতিষ্ঠানগুলো আজ একেকটা অর্থ আবাদের তীর্থভূমিতে পরিণত হয়েছে। যা থেকে শিক্ষার্থীদের মৌলিক অধিকার আজ টাকার কাছে নত স্বীকার করেছে।

এ দুই ছাত্রনেতা বলেন, আমরা স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই স্কুলগুলোতে এ যাবতকালে চট্টগ্রাম নগরীর জন্য নির্ধারিত তিন হাজার টাকার বেশি ভর্তি ফি যে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নেওয়া হয়েছে তা ফিরিয়ে দিতে হবে। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক মাসিক বেতন অপরিবর্তিত রাখতে হবে। পুনর্ভর্তি ফি, উন্নয়ন ফি নামে কথিত সব ফি আদায় বন্ধ করে ইতিপূর্বে আদায় করা অর্থ ফেরত দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যথায় এসএসসি ফরম পূরণে অতিরিক্ত অর্থ আদায় বিরোধী আন্দোলনের মতো সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সামনে চট্টলার সর্বস্তরের ছাত্রলীগ নেতাদের সাথে নিয়ে অবস্থান কর্মসূচির ম্যাধমে দাবি আদায়ে বাধ্য করবে।

ছাত্রলীগ নেতারা, জেলা প্রশাসন ও শিক্ষা বোর্ডকে এ বিষয়ে সরকারি নীতিমালা বাস্তবায়নে ছাত্রলীগকে সাথে নিয়ে পথচলার আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে চট্টগ্রাম কলেজ ও হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজের দুর্নীতিবাজ শিবিরপন্থী ২ অধ্যক্ষের দুর্নীতি তদন্তে জেলা প্রশাসকের সহযোগিতা কামনা করা হয়।