মালয়েশিয়া: ইসলামি বিমান সংস্থা চালু

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৪ ডিসেম্বর , ২০১৫ সময় ১১:২৯ অপরাহ্ণ

মালয়েশিয়া রায়ানি এয়ার নামে তাদের নতুন যে ইসলামি বিমান সংস্থা চালু করেছে তার প্রথম বিমানটি আকাশে উড়েছে এই সপ্তাহে । কী দিচ্ছে এই বিমান সংস্থা?

১. তারা শরিয়া আইন মেনে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

যার অর্থ হল এই বিমানে পরিবেশন করা সব খাবার থাকবে হালাল। বিমান আকাশে ওড়ার আগে নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা থাকবে।

মুসলমান বিমান সেবিকাদের হিজাব পরতে হবে আর অমুসলমান সেবিকাদের ‘শালীনতা বজায় রেখে পোশাক’ পরতে হবে।

এই বিমানে শূয়রের মাংস বা কোনোরকম মদ্যপানীয় পরিবেশন করা হবে না। তবে বিমানযাত্রীরা তাদের ব্যাগ বা স্যুটকেসে কিংবা শুল্ক-মুক্ত দোকান থেকে কেনা কোনো মদ সঙ্গে নিয়ে বিমানে উঠতে পারবেন কিনা তা এখনও পরিষ্কার নয়।

২. তবে এটাই বিশ্বের একমাত্র ইসলামি বিমান সেবাব্যবস্থা নয়

ইরান এয়ারের ফ্লাইটেও মদ পরিবেশন করা হয় না।

বিশ্বের বিভিন্ন মুসলমান-প্রধান দেশের বহু বিমান সংস্থা শরিয়া আইন মেনেই খাবার পরিবেশন করেন এবং শরিয়া মোতাবেক নানা আইন কানুন মেনে চলেন। এদের মধ্যে আছে রয়্যাল ব্রুনেই, সৌদি আরাবিয়ান এবং ইরান এয়ার।

লন্ডন ভিত্তিক ফিরনাস এয়ারওয়েসও আগামী বছর দক্ষিণ এশিয়ায় নতুন একটি বিমান সেবা চালু করবে যে বিমানে মদ পরিবেশন করা হবে না, এবং শুধু হালাল খাবার দেওয়া হবে ।

৩. কে এই রায়ানি এয়ারের মালিক?

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রচারিত এক খবরে বলা হচ্ছে এই এয়ারলাইন্সের প্রতিষ্ঠাতা রাভি আলাগ্রেন্দ্রান এবং তার স্ত্রী কার্তিয়ানি গোবিন্দন। তবে কোনো নিরপেক্ষ সূত্র থেকে এই বিমান সংস্থার মালিকানা সম্পর্কে তথ্য নিশ্চিত করা যায় নি।

রায়ানি এয়ারের মালিকরা বলছেন মুসলমান ভ্রমণকারীদের সংখ্যা যে হারে বাড়ছে তাতে এধরনের বিমানসেবার চাহিদাও বাড়ছে।

মিঃ আলাগ্রেন্দ্রান ‘মালে মেল’ নামে এক পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন মুসলমান ভ্রমণকারীদের সংখ্যা অনেক বেড়ে যাওয়ায় তারা এইধরনের বিমানব্যবস্থার একটা ভাল বাজার রয়েছে বলে মনে করছেন। তবে তিনি বলেছেন তার বিমান সংস্থায় অন্যধরনের যাত্রীদের মনোরঞ্জনেরও খোরাক থাকছে।

‘‘এটা কোনো বিভেদ তৈরির বিষয় নয়। যারা তুলনামূলক কম খরচে – মদ্যপান বিহীন বিমানে যাত্রা করতে পছন্দ করেন তারা এই এয়ারলাইন্সে ভ্রমণ করতে স্বচ্ছন্দ বোধ করবেন, ’’ সংবাদপত্রকে বলেছেন মি: আলাগ্রেন্দ্রান।

তিনি আরও বলেছেন ইউরোপের ‘রায়ান এয়ার’ বিমান সংস্থার সঙ্গে এর কোনো যোগাযোগ নেই। রাভির ‘রা’ আর কার্তিয়ানি-র ‘য়ানি’ জুড়ে এই বিমান সংস্থার নাম দেওয়া হয়েছে রায়ানি এয়ার।


আরোও সংবাদ