মারমা তরুণীকে গণধর্ষণের দায়ে তিনজনকে মৃত্যুদন্ড

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:৪১ অপরাহ্ণ

গণধর্ষণপাহাড়ি মারমা সম্প্রদায়ের তরুণীকে গণধর্ষণের দায়ে তিনজনকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন চট্টগ্রামের একটি আদালত। একই রায়ে আদালত আরও দু’জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দিয়েছেন।

মঙ্গলবার চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক মো.রেজাউল করিম আসামীদের উপস্থিতিতে এ রায় দেন।

দন্ডিত তিন ধর্ষক হল, কামাল উদ্দিন প্রকাশ জুয়েল (২২), মো.ইকবাল হোসেন (২০) এবং সুমন রবি দাশ (১৮)। তাদের সবার বাড়ি রাঙ্গুনিয়া উপজেলায় বলে জানা গেছে।

ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট এম এ নাসের চৌধুরী বলেন, ‘তিন আসামীর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ রাষ্ট্রপক্ষে সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে পারায় আদালত প্রত্যেককে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন।’

মামলার বাদিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো.ইদ্রিস জানান, ২০১১ সালের ৮ নভেম্বর রাঙামাটির কাউখালী উপজেলার শিয়ারবুক্কা পাড়ার মারমা সম্প্রদায়ের এক তরুণীকে পূর্ব পরিচয়ের সূত্র ধরে কয়েকজন তরুণ চাকুরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নগরীতে নিয়ে আসেন। তাকে প্রথমে রাঙামাটি থেকে রাঙ্গুনিয়ার রাণীরহাট এলাকায় এবং সেখান থেকে নগরীর ষোলশহর সিডিএ এলাকায় শামছু ম্যানশনে একটি বাসায় নিয়ে যান বখাটে তরুণরা।

সেখানে তিনদিন ধরে আটকে রেখে তারা ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন। ১২ নভেম্বর তাদের হাত থেকে ছাড়া পেয়ে ওই তরুণী রাঙ্গুনিয়া থানায় গিয়ে চারজনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন।

ওই মামলায় তদন্ত শেষে পুলিশ আরও একজন নতুন আসামীসহ মোট পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে ২০১২ সালের ৮ এপ্রিল আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। একই বছরের ৩ নভেম্বর আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলার বাদি ও তদন্তকারী কর্মকর্তাসহ মোট ৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে মঙ্গলবার আদালত রায় ঘোষণ‍া করেন। রায় ঘোষণার পর দন্ডিত আসামীদের ‍আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়।