মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করে এবং নাশকতা চালিয়ে যুদ্ধাপরাধীর বিচার ঠেকানো যাবে না-দীপংকর

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২০ ডিসেম্বর , ২০১৩ সময় ০৭:৪৭ অপরাহ্ণ

কাপ্তাই প্রতিনিধি>>
অবরোধের নামে পেট্রোল বোমায় মানুষ পুড়িয়ে হত্যা, রেল লাইনের ফিসপ্লেট খুলে ফেলা, আগুন দিয়ে বাড়ীঘর পুড়িয়ে নাশকতা চালিয়ে যুদ্ধাপরাধীর বিচার ঠেকানো যাবে না। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় কাপ্তাই উপজেলাধীন শিল্প এলাকা চন্দ্রঘোনার কেপিএম আবাসিক এলাকার চান্দিমা সিনেমা হল প্রাঙ্গণে নির্বাচনী এক সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে অর্ন্তবর্তীকালীন সরকারের পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী ও ২৯৯ নং রাঙ্গামাটি আসনের আওয়ামীলীগ প্রার্থী দীপংকর তালুকদার এ কথা বলেন। নির্বাচনী পথ সভায় সভাপতিত্ব করেন, চন্দ্রঘোনা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ ইলিয়াছ। কামরুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, ছাত্রলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম সুমন, সাইদুল হক, যুবলীগ নেতা তানভীর আহম্মেদ, আকবর হোসেন, শ্রমিক নেতা তৌহিদ আল মাহবুব চৌধুরী, জসিম উদ্দিন, মাকসুদুর রহমান মুক্তার, আ’লীগ নেতা মোঃ মফিজুল হক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অংসুইছাইন চৌধুরী, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুছা মাতব্বর প্রমূখ। প্রধান অতিথি তার বক্তব্য আরো বলেন, বিএনপি জামাত জোট আন্দোলনের নামে সারা দেশের সড়কের পাশের হাজার হাজার গাছ নির্বিচারে কেটে ফেলছে। এ নিয়ে পরিবেশবাদী কোন সংগঠন এবং টিভি’র টক’শো গুলোতে এখনও পর্যন্ত কেউ কোন মন্তব্য না করায় ক্ষোভের সহিত বলেন, এমনিতে কেউ একটি গাছ কাটলেই পরিবেশবাদী ও কতিপয় বুদ্ধিজীবি টকশো’তে পরিবেশ ধ্বংসের আওয়াজ তুলে থাকে। এছাড়া কেপিএম এর শ্রমিক কর্মচারীদের উদ্দ্যোশে প্রধান অতিথি আরো বলেন, বিএনপি জামাত জোট ক্ষমতায় এসে শ্রমিকদের চাকুরী ৬০ বছরের স্থলে ৫৭ বছর করেছে। দেশের অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো কর্ণফুলী রেয়ন মিল বন্ধ করে দিয়েছে। কিন্তু আওয়ামীলীগ সরকার শ্রমিকদের চাকুরী ৫৭ থেকে পুনরায় ৬০ বছর করেছে। শ্রমিকদের চাকুরী ও কেপিএম বাঁচাতে আগামী নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার অনুরোধ করেন।