অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পাহাড়ে যোগাযোগ ও অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে সরকার

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৬ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১০:৪৩ অপরাহ্ণ

মানিকছড়িতে সেতু নির্মাণ কাজের উদ্বোধনকালে যোগাযোগ মন্ত্রী-ওবায়দুল কাদের

ma.মানিকছড়ি প্রতিনিধিঃ- খাগড়াছড়ি-চট্রগ্রাম মহাসড়কের ‘মরণ ফাঁদ’ বেইলী ব্রিজ ও সড়ক উন্নয়নে অগ্রাধিকার প্রকল্প হিসেবে গতকাল ৬ আগস্ট দেড়শ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৬টি ব্রীজের নির্মান কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করলেন যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের (এম.পি)। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সরকার পার্বত্যাঞ্চলের সড়ক যোগাযোগ ও অববাঠামো উন্নয়নে অগ্রাধিকার প্রকল্প হিসেবে সেতু নির্মান করা হচ্ছে। তিনি আরো বলেন এ অঞ্চলে বসবাসকারী সকল নাগরিকের সহাবস্থান নিশ্চিত করতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে সরকার।
সকাল ১০টা থেকে খাগড়াছড়ি-চট্রগ্রাম সড়কের হাটহাজারী-ফটিকছড়ি-খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক মহাসড়কে জাইকা ও জিওবি’র অর্থায়নে নির্মাণের প্রকল্পগুলোর মধ্যে খাগড়াছড়ির সওজ অংশে ৭টি বড় ও ৯টি ছোট বেইলী ব্রীজের উদ্বোধন শুরু করেন। ১৬টি ব্রীজের প্রতিটিতেই তিনি প্রকল্পের ফলক উম্মোচন ও মোনাজান করেন। মানিকছড়ি সদর আমতলার বড় ব্রীজটি উদ্বোধন করে মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, সরকার পার্বত্যাঞ্চলের সড়ক যোগাযোগ ও অববাঠামো উন্নয়নে অগ্রাধিকার প্রকল্প হাতে নিয়ে কাজ করছে। এ অঞ্চলে বসবাসকারী সকল নাগরিকের সহাবস্থান নিশ্চিত করতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে সরকার। তিনি আরো বলেন, পর্যাপ্ত জনবল না থাকায় মহাসড়কগুলো দ্রুত উন্নয়নে সরকার যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এসব প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। ধীরে ধীরে জনবলে স্বয়ংসম্পন্ন হলে স্থানীয় উন্নয়ন সংস্থাগুলোকে এসব উন্নয়নের দায়িত্ব দেয়া হবে।
এ সময় তাঁর সাথে উপস্থিত ছিলেন, বান্দবান জেলার সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বীর বাহাদুর (এম.পি), খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ জাহেদুল আলম, খাগড়াছড়ি নির্বার্হী প্রকৌশলী (সওজ) মো. ইসমাইল হোসেনসহ জিওবি ও জাইকার প্রকল্প সংশ্লিষ্ঠ কর্মকর্তরা।
সওজ সূত্রে জানা গেছে, খাগড়াছড়ি-চট্রগ্রাম সড়কের হাটহাজারী-ফটিকছড়ি-খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক মহাসড়কে জাইকা ও জিওবি’র অর্থায়নে সরকার ৭টি বড় ও ৯টি ছোট বেইলী ব্রীজ নির্মাণ প্রকল্পে প্রায় ১২৮ কোটি ১৩ লক্ষ টাকা এবং ফটিকছড়ি ও হাটহাজারীর দু’টি ব্রীজসহ মোট ১৫৫ কোটি টাকার প্রকল্পের কাজ উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে পুরোদমে শুরু হলো। বিকালে মন্ত্রীর খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামীলীগের দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।


আরোও সংবাদ