মানব জাতির সেবা করা আল্লাহর শ্রেষ্ঠ ইবাদতের মধ্যে শামিল

প্রকাশ:| রবিবার, ২৫ ডিসেম্বর , ২০১৬ সময় ০৮:২৫ অপরাহ্ণ

মানব কল্যাণ মানবতা মুক্তির অন্যতম সোপান মন্তব্য করে সৈয়দ ইরফানুল হক মাইজভান্ডারী বলেন, আল্লাহ মানুষকে মানবতার শ্রেষ্ঠ গুণাবলী দিয়ে সৃষ্টি করে আশরাফুল মাখলুকাতের মর্যাদা দিয়েছেন। তাই মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে পারলে সৃষ্টির সেরা জীবের দায়িত্ব পালন করা হবে।নিঃস্বার্থে মানব জাতির সেবা করা আল্লাহর শ্রেষ্ঠ ইবাদতের মধ্যে শামিল।

রোববার মাইজভা-ার দরবার শরীফে ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্পে সভাপতির বক্তব্যে সৈয়দ ইরফানুল হক মাইজভা-ারী এসব কথা বলেন।মাইজভান্ডারী শাহ এমদাদীয়া ব্লাড ডোনার্স গ্রুপ এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

তিনি আরো বলেন, মানবতার মুক্তির পথ হিসেবে গাউছুল আজম মাইজভান্ডারী মাওলানা শাহ ছুফী সৈয়দ আহমদ উল্লাহ (ক:) ‘মাইজভান্ডারী তরিকা’ প্রবর্তন করেন। এই তরিকার মূল লক্ষ্য হচ্ছে মানবতার সেবা এবং আল্লার জিকিরের মাধ্যমে মানব আত্মা পরিশুদ্ধ করে রূহানী উৎকর্ষ সাধনের মাধ্যমে আল্লাহর নৈকট্য হাসেল করা।

মাইজভান্ডার দরবার শরীফস্থ শাহ এমদাদীয়া ভবনে রোববার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়।ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্পে ডা. কামরুন নেছা রুনা, ডা. প্রীতি বড়ুয়া, ডা. অধ্যাপক আকতার হোসেন চৌধুরী, ডা. মইনুদ্দীন মঞ্জু, ডা. জিএম গোলাম রসুল আতিক, ডা. সৈয়দুল আলম কোরাইশী, ডা. জি এম জামাল, ডা. আদনান বিন সালেহ, ডা. আরফাত সুলতানা নিপা, ডা. মুহাম্মদ অহি উদ্দীন, ডা. রাইসুল ইসলাম অমিত, ডা. নুরুল ইসলাম ভূঁইয়ার নেতৃত্বে জালালাবাদ কমিউনিটি চক্ষু হাসপাতালের মেডিক্যাল টিমসহ অন্যান্য ডাক্তাররা চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন।

মাইজভান্ডার গ্রামের পাচঁপাড়াসহ ফটিকছড়ি, হাটহাজারী, রাউজান ও বিভিন্ন উপজেলার প্রায় ২ হাজার মানুষকে মেডিসিন, হৃদরোগ, শিশু, গাইনী, বাত ব্যাথা, চর্ম ও যৌন, শিশু, অর্থোপেডিক্স এবং চোখের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়।

এছাড়া সকাল ১১টায় গাউছুল আজম মাইজভান্ডারী মেধা বৃত্তি পরিক্ষার বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।ফটিকছড়ি, হাটহাজারী ও রাউজান উপজেলার ৮১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৭২৬ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৬০জন বৃত্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়।

মওলানা আবুল মনসুরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অধ্যাপক ড. কাজী আহমদ নবী, অধ্যাপক সরওয়ার আলম, অধ্যাপক মোরশেদুল আলম, সৈয়দ আবু তালেব, শেখ মুহাম্মদ আলমগীর, মাওলানা জয়নাল আবেদীন সিদ্দিকী, মুহিউদ্দীন এনায়েত, অধ্যাপক মেজবাউল আলম প্রমুখ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

প্রতি বছর ১০ মাঘ (২৩ জানুয়ারী) গাউছুল আজম মাইজভান্ডারী হযরত মওলানা শাহ ছুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ (ক.) এর বার্ষিক ওরশ শরীফ উপলক্ষে আঞ্জুমানে মোত্তাবেয়ীনে গাউছে মাইজভান্ডারী (শাহ এমদাদীয়া) এর দুই মাস ব্যাপী কার্যক্রমের অংশ হিসাবে মাইজভান্ডারী শাহ এমদাদীয়া ব্লাড ডোনার্স গ্রুপের ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প এবং মাইজভান্ডারী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে গাউছুল আজম মাইজভান্ডামী মেধাবৃত্তি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


আরোও সংবাদ