মাদকদ্রব্য কার্যালয়ের তালা ভেঙে ইয়াবা ও গাঁজা চুরি

প্রকাশ:| সোমবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি , ২০১৬ সময় ১০:৫১ অপরাহ্ণ

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

টেকনাফে মাদকদ্রব্য কার্যালয় থেকে ২ লাখ পিস ইয়াবা ও ২ কেজি গাঁজা চুরির ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার রাতে টেকনাফ উপজেলা পরিষদের পুরোনো ভবনের দ্বিতীয় তলায় অবস্থিত মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কার্যালয়ের তালা ভেঙে চোরেরা পৌনে ২ লাখ ইয়াবা ও ২ কেজি গাঁজা চুরি করে নিয়ে গেছে।

টেকনাফ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের পরিদর্শক তপন কান্তি শর্মা জানান, শনিবার দুপুর একটার দিকে কার্যালয়ের তালা লাগিয়ে আমি সরকারি কাজে মামলার সাক্ষী দিতে রাঙ্গামাটি যায়। এর আগে আরো দুজন নতুন কর্মকর্তা যোগদান করে একইদিন দুপুরে চট্টগ্রামে চলে যায়। এ সুযোগে সোমবার গভীর রাতের যেকোন সময়ে কার্যালয়ের দরজার তালা ভেঙে চুরির ঘটনা ঘটে। সকালের দিকে কার্যালয়ে দরজার তালা ভাঙা দেখতে পেয়ে উপজেলা পরিষদের কর্মকর্তারা বিষয়টি আমাকে অবহিত করে। এরপর আমি বিষয় জেলা মাদকদ্রব্য কর্মকর্তাকে জানায়। খবর পেয়ে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শফিউল আলম, ২ বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর আবু রাসেল ছিদ্দিকী, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবদুল মজিদ ও জেলা মাদকদ্রব্য অধিদফতরের সহকারী পরিচালক সুবোধ কুমার বিশ্বাসের নেতৃত্বে একটি দল ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন।

এব্যাপারে পরিদর্শক তপন কান্তি শর্মা জানান, সোমবার সকালে আমাদের অফিসে তালা ভাঙ্গা ও দরজা খোলা দেখে উপজেলার অন্যন্য অফিসের কর্মকর্তারা আমাকে মোবাইল ফোন জানায়। খবর পেয়ে আমি এসে দেখি দরজার তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে আলমিরার থাকা বিভিন্ন মামলার আলামত এক লাখ ৮১ হাজার ৯১৩ ইয়াবা ও ২ কেজি গাঁজা নিয়ে যায়। তবে ঘটনায় সময় আমাদের কার্যালয়ের আমিসহ অন্য কর্মকর্তারা সাক্ষী দিতে রাঙ্গামাটি ও কক্সবাজার থাকার সুযোগে কার্যালয়ে চুরির ঘটনা ঘটে। এ সময় কার্যালয়ের অন্যান্য মামলার কাগজপত্র ও ফাইল তচনচ করে। এ ব্যাপারের একটি মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

টেকনাফে মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবদুল মজিদ বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এখনও কোন অভিযোগ পায়নি পেলে চুরিতে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতার ও চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধারের চেষ্টায় অভিয়ান অব্যাহত থাকবে।