মাগুরায় পুলিশের গুলিতে বিএনপি কর্মী নিহত

প্রকাশ:| রবিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি , ২০১৫ সময় ১০:৩১ অপরাহ্ণ

মাগুরার শালিখা উপজেলার সীমাখালি এলাকায় পুলিশের গুলিতে মশিউর রহমান (৪০) নামে বিএনপির এক নেতা নিহত হয়েছেন। আজ রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার ছয় ঘরিয়া হাজামবাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি মশিয়ারসহ আরও কয়েকজন টহল পুলিশের গাড়িতে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করলে পুলিশের তিন সাব ইন্সপেক্টর ও দুই কনষ্টেবল আহত হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ শর্টগানের গুলি ছুড়লে কাজী মশিয়ার রহমান গুলি বিদ্ধ হয়। তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত ডা. মমতাজ উদ্দিনব তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

শালিখা থানার ওসি বিপ্লব কুমার নাথ সাংবাদিকদের জানান, ঘটনাস্থল থেকে চারটি পেট্রলবোমা উদ্ধার করা হয়েছে। তবে কোনো পেট্রলবোমা পুলিশ সাংবাদিকদের দেখাতে পারেননি। নিহত মশিয়ার রহমান শালিখার শতখালী ইউনিয়ন ওয়ার্ড বিএনপির সেক্রেটারি বলে ওসি দাবি করেন। তবে এলাকাবাসী জানিয়েছে নিহত মশিয়ারের কোন দলীয় পদ পদবী নেই। সে বিএনপি কর্মী।

এলাকাবাসী আরও জানান, সন্ধ্যায় ওই এলাকার একটি চায়ের দোকানে বসা অবস্থায় মশিয়ার রহমান ও রফিকুল ইসলাম পাটওয়ারী নামের দুই জনকে ওসি বিপ্লব কুমার নাথের নেতৃত্বে পুলিশ দল ধরে নিয়ে যায়। এর কিছুক্ষণ পরই গুলির আওয়াজ পাওয়া যায়। এসময় রফিকুল ইসলাম পাটওয়ারীও (৫০) আহত হয়েছেন বলে এলাকাবাসী জানান।

সহকারী পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায় ওই দু’জনকে ধরে এনে গুলি করার কথা অস্বীকার করেছেন।

এ ঘটনার পর থেকে এলাকায় ব্যাপক পুলিশ র‌্যাব ও বিজিবি তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে। এলাকায় আতংক বিরাজ করছে।

উল্লেখ্য শনিবার বিকালে সীমাখালী বাজারে হরতাল সমর্থনকারীরা মিছিল বের করার জন্যে যুবদল ও বিএনপি কর্মীরা সমবেত হলে পুলিশ সেখানে যায়। এসময় পুলিশ ও বিএনপি যুবদল নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এসময় তিন পুলিশ আহত ও পুলিশের গাড়ি ভাংচুর হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে পুলিশ ১৫ রাউন্ড ফাকা গুলি ছুড়েছিল। এ ঘটনায় শালিখা থানায় ৩০/৪০কে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।