মাইজভাণ্ডারী শিশু কিশোর সমাবেশ অনুষ্ঠিত

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৬ জানুয়ারি , ২০১৫ সময় ০৭:৫৫ অপরাহ্ণ

মাইজভাণ্ডারী শিশু কিশোর সমাবেশ অনুষ্ঠিতবাল্যকাল থেকে শিশুদের নৈতিক শিক্ষায় শিক্ষিত ও দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের মহাপরিচালক আবদুল মান্নান।

শুক্রবার সকালে নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অষ্টম মাইজভাণ্ডারী শিশু কিশোর সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

মাইজভাণ্ডরী তরিকার প্রবর্তক গাউসুল আজম হযরত মাওলানা সৈয়দ আহমদ উল্লাহ মাইজভাণ্ডরী (ক.)-এর ১০৯তম বার্ষিক ওরস উপলক্ষে মাইজভাণ্ডারী একাডেমি এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

আবদুল মান্নান বলেন, শিশুদের দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করতে হলে বাল্যকাল থেকে শিক্ষা দিতে হবে। যাতে বড় হয়ে সে বিপথে চলে না যায়। তাছাড়া নৈতিক শিক্ষাও ছোটকাল থেকে অর্জন করতে হবে। ভাল মানুষ হিসেবে নিজেকে গড়ে তুলতে হলে প্রকৃত শিক্ষা অর্জন করা জরুরী।

তিনি বলেন, যার নামে এই মাইজভাণ্ডারী একাডেমি তিনি কেমন ছিলেন। তিনি কোন আলো জ্বালানোর জন্য সাধনা করেছিলেন, বিপদে মানুষের পাশে কিভাবে দাঁড়িয়েছিলেন তা বুঝতে হবে। তার জীবনাদর্শ আলোচনা করে নিজেকে সেই ভাবে গড়ে তুলতে হবে। তাহলে এ প্রয়াস সফল হবে।

আবদুল মান্নান বলেন, বাংলাদেশে অনেক শিক্ষাবিদ আছে, কিন্তু ভাল শিক্ষকের পরিসংখ্যান পাওয়া সম্ভব নয়। কারণ শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক থাকে না এর বাইরেও ভাল শিক্ষক থাকতে পারে। আমরা সূর্যের আলো দেখি কিন্তু মনের আলো দেখা যায় না। মনের আলো দেখতে হলে মনের চোখ প্রয়োজন। মনের আলো থাকলে মানুষ হিসেবে পরিণত হয়। আর মানুষের প্রকৃত পরিচয় পাওয়া যায় যখন মানুষটি বিশ্বমানবের সাথে কিভাবে আচরণ করছেন, জীব জন্তুর সাথে আচরণ করছেন তা দেখে। তাই সকলকে মানব কল্যাণে কাজ করতে হবে।

মাইজভাণ্ডরী একাডেমির সহ সভাপতি অধ্যাপক ড. হেলাল উদ্দিন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শিশু কিশোর সমাবেশে প্রধান বক্তা ছিলেন দৈনিক আজাদীর ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ওয়াহেদ মালেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট সুরকার ও গীতিকার আবদুল গফুর হালী। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাইজভাণ্ডরী একাডেমির সাধারণ সম্পাদক মীর মুহাম্মদ তরিকুল ইসলাম। সমাবেশ শেষে অতিথিবৃন্দ বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ী শিশু কিশোরদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করেন।


আরোও সংবাদ