মহেশখালীতে পৈত্রিক ভিটায় মহিলার লাশ উদ্ধার

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১১ সেপ্টেম্বর , ২০১৮ সময় ০৪:৫৮ অপরাহ্ণ

মহেশখালী প্রতিনিধি: কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ী ইউনিয়নের মগডেইল এলাকায় গলায় ফাঁস লাগানো মিনু আরা বেগম (৫০) নামের এক মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে মাতারবাড়ী পুলিশ ক্যাম্পের আইসি আমিনুর রহমানের নেতৃত্বে একটি পুলিশের দল।

আজ সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২ টার দিকে মাতারবাড়ী মগডেইল পৈত্রিক ভিটা থেকে এ ঘটনা ঘটে।

মিনু আরা মাতারবাড়ী ইউনিয়নের মগডেইল এলাকার নুরুল ইসলামের স্ত্রী বলে জানা গেছে। পারিবারিক কলহের জেরধরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্নহত্যা করেছে।

সূত্রে জানা গেছে, ধলঘাটার বাসিন্দা নুরুল ইসলামের সাথে ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক মাতারবাড়ী মগডেইলের বাসিন্দ্রা মৃত হামজা মিয়ার মেয়ে নিহত মিনু আরা বেগমের সাথে বিবাহ হয়। বিয়ের পরবর্তী থেকে মিনু আরা বেগমের বিঠাতে দুজনেই বসবাস করে আসছিল। তাদের দাম্পত্য জীবনে ২টি ছেলে সন্তান জন্ম লাভ করে। এ অবস্থতায় স্বামী স্ত্রী দুইজনের মধ্যে মনেমালিন্য দেখা দেয়। এক পর্যায়ে ছেলেসহ স্ত্রীকে পেলে নুরুল ইসলাম চট্টগ্রামে চলে যায়। পরে বহু কষ্টের বিনিময়ে নিহত মিনু আরা বেগম ২ ছেলেকে বড় করে গড়ে তোলে। তার বড় পুত্র করিমকে ১ বছর পূর্বে স্থানীয় ওয়াহিদা খাতুন নামে এক মহিলার সাথে বিবাহ সম্পন্ন করেন। তার পুত্র বধু সংসারে দেড়মাসের একটি শিশু কন্যা জন্ম লাভ করে। এ অবস্থায় বড় পুত্র করিমের সাথে তুচ্ছা ঘটনাকে কেন্দ্র করে কয়েকদিন পুর্বে সামান্য তর্কাতর্কির ঘটনা ঘটে বলে জানান নিহতের পুত্র বধু ওয়াহিদা বেগম।

পুত্র বধু ও স্থানীয় লোকজন জানান, বড় ছেলে করিম ঘটনার দিন ভোরে তার চাকুরী ডিউটি করার জন্য স্থানীয় কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পে চলে যায়। পরেক্ষনে জানতে পারে তার মা গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। অনেকে ধারনা করছেন ছেলের সাথে অভিমান করে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্নহত্যা করেছে।

মাতারবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ আমিনুর রহমান বলেন, গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় এক মহিলার লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেছি।