মহিউদ্দিনসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

প্রকাশ:| সোমবার, ৯ জুন , ২০১৪ সময় ০৭:৫৯ অপরাহ্ণ

নগরীর ও আর নিজাম রোডে বিরোধপূর্ণ জায়গায় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস নির্মাণকে কেন্দ্র করে সাবেক মেয়র ও নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে। মামলার এজাহারে মহিউদ্দিনসহ ১৩ জনকে আসামী করা হয়েছে।

সোমবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আহমেদ সাঈদের আদালতে নজরুল ইসলাম নামে একজন মামলাটি দায়ের করেন।

আদালত এজাহারে আনা অভিযোগ আমলে নিয়ে চকবাজার থানার ওসিকে তা এজাহার হিসেবে রেকর্ড করার নির্দেশ দিয়েছেন।

নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (প্রসিকিউশন) মুহাম্মদ রেজাউল মাসুদ মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে তারা হলেন, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আবু তাহের ও নিরাপত্তা কর্মকর্তা ইমরান হাফিজ, বাগমণিরাম ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো.গিয়াস উদ্দিন, নগর ছাত্রলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক আরশাদুল আলম বাচ্চু, ছাত্রলীগ কর্মী মো.ইকবাল প্রকাশ পিস্তল ইকবাল, ঠিকাদার একেএম নাজমুল আহসান, যুবলীগ নেতা মো.ইদ্রিস, নির্মাণাধীন ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা রক্ষী মো.ফারুক, কাজল ও খোকন, বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়িচালক আলমগীর, সাবেক মেয়র ও প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের গভর্ণিং বডির সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী এবং শিক্ষার্থী মো.রাসেল।

গত ৬ জুন নগরীর ও আর নিজাম রোড এলাকায় বিরোধপূর্ণ জায়গায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এতে বিরোধপূর্ণ জায়গার একাংশের মালিক দাবিদার আলিশা প্রপার্টিজের ভাড়াটিয়া দোকানদার নজরুল ইসলামসহ কয়েকজন আহত হন। ঘটনার সময় নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য নির্মিত সেমিপাকা ঘরের মধ্যে বসা ছিলেন বলে অভিযোগ আছে।

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আবু তাহের বাদি হয়ে নজরুল ইসলামসহ কয়েকজন দোকানদারের বিরুদ্ধে চকবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এরপর সোমবার আহত দোকানদার নজরুল ইসলাম বাদি হয়ে আদালতে পাল্টা মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে অভিযোগ করা হয়েছে, গত ৬ জুন বিকেল ৩টার দিকে সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে অভিযুক্তরা তাদের বসতিতে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে ভয়ভীতি দেখায় এবং ভাংচুর, লুটপাট, চাঁদাবাজি ও হামলার মাধ্যমে গুরুতর জখম করে। এতে মহিউদ্দিনকে ‘ভূমিদস্যু’ প্রকৃতির ব্যক্তি হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দন্ডবিধির ১৪৩, ১৪৮, ১৪৯, ৪৪৭, ৪৪৮, ৩২৩, ৩২৪, ৩২৫, ৫০৬/৩৪ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য ও আর নিজাম রোডে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস নির্মাণ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এ নিয়ে সিটি কর্পোরেশনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করে জায়গার মালিক দাবিদার তিনটি পক্ষ। পাল্টা সংবাদ সম্মেলন ডেকে বর্তমান মেয়র এম মনজুর আলম এবং সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী তাদের বক্তব্যও তুলে ধরেন। এর এক পর্যায়ে গত শুক্রবার গোলাগুলির ঘটনা ঘটল।


আরোও সংবাদ