মসজিদে ঢুকে মুসল্লিদের ওপর গুলি, নিহত ১

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর , ২০১৫ সময় ১০:৫৯ অপরাহ্ণ

১২৩বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলায় একটি মসজিদে ঢুকে মুসল্লিদের ওপর গুলি চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে মোয়াজ্জেম হোসেন (৭৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ হয়েছেন আরও তিনজন। এদের মধ্যে দু’জনকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপরজনকে ভর্তি করা হয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

বৃহস্পতিবার (২৬ নভেম্বর) শিবগঞ্জের কিচক ইউনিয়নের হরিপুর বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন ‘মসজিদ-ই-আল মোস্তফা’য় মাগরিবের নামাজের পর এ গুলি চালানো হয়। মসজিদটি শিয়া সম্প্রদায়ের।

নিহত মোয়াজ্জেম হোসেন কিচকের হরিপুর গ্রামের মৃত বছির উদ্দিনের ছেলে। গুলিবিদ্ধ তিনজন হলেন মো. শাহীনুর, আবু তাহের ও আফতাব আলী। এদের মধ্যে শাহীনুর ও তাহেরকে শজিমেকে ভর্তি করা হয়েছে। দু’জনের অবস্থাই আশঙ্কাজনক। আর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে আফতাবকে।

শাহীনুরের ভাই তৌফিকসহ স্থানীয়রা বাংলানিউজকে জানান, মুসল্লিরা মাগরিবের নামাজ শেষে মসজিদ থেকে বের না হয়ে (শিয়াদের রীতি) এশার নামাজের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। এসময় তিনজন দুর্বৃত্ত মসজিদে ঢুকে এলোপাতাড়ি গুলি চালিয়ে চলে যায়। এদের প্রত্যেকের বয়স ২০ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। সবার পরনে পাজামা, পাঞ্জাবি ও মাথায় টুপি ছিল।

তৎক্ষণাৎ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মোয়াজ্জেম, শাহীনুর ও তাহেরকে শজিমেকে পাঠানো হয়। আর আফতাবকে পাঠানো হয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। শজিমেকে নেওয়ার পর মোয়াজ্জেমকে তখনই চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। বাকি তিনজন চিকিৎসাধীন।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পূর্ব) আরিফুর রহমান মন্ডলও বাংলানিউজকে জানান, দুর্বৃত্তদের গুলিতে এক মুসল্লি নিহত হয়েছেন। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় শাহীনুর ও আবু তাহের নামে দু’জন শজিমেকে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এদিকে, রাত সাড়ে ৮টায় এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে জেলার পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অবস্থান করছিলেন।


আরোও সংবাদ