মনজুর পরাজয় দেখার অপেক্ষায় নগরবাসী-নাছির

প্রকাশ:| সোমবার, ২০ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ১০:১৪ অপরাহ্ণ

নাছিরচট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নাগরিক কমিটির মেয়র প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেছেন, সরকারি সহায়তা পেয়েও নগরবাসীকে উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত করার জবাব ভোটের মাধ্যমে দিতে হবে। ব্যর্থ মেয়র মনজুর আলম ও তাদের সহযোগীদের বুঝিয়ে দিতে হবে অধিকার নিয়ে যারা ছিনিমিনি খেলে সাধারন মানুষ তাদের ছাড়ে না।
আজ সোমবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রামে বসবাসরত লোহাগাড়াবাসীর সাথে এক মতিবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন আ জ ম নাছির উদ্দিন। নগরীর আন্দরকিল্লাস্থ প্যারাগন সিটি কনভেনশন হলে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। লোহাগাড়া নাগরিক কমিটির সভাপতি ওমর ফারুক মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. আবু রেজা মো. নেজাম উদ্দিন নদভী। প্রধান বক্তা ছিলেন মেয়র প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিন।
আ জ ম নাছির উদ্দিন বক্তৃতায় বলেন, জলাবদ্ধতা নিরসন ও পরিস্কার পরিচ্ছন্ন নগরী উপহার দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন মেয়র মনজুর আলম। এ জন্য সরকার ৩০০ কোটি টাকা বরাদ্ধও দিয়েছিলেন। কিন্তু জলাবদ্ধতা নিরসন না করে এ টাকা কি করেছেন তা তিনি নিজেই জানেন।
আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, গত ৫ বছরের কর্মকান্ডের হিসেবের তদন্ত হলে মনজুর আলমের থলের বেড়াল বেরিয়ে আসবে। নগরীর সচেতন মহলের এসব কিছুই জানা আছে। এরপরও তিনি ভোট চাইতে মানুষের কাছে মুখ দেখান কিভাবে?
তিনি বলেন, তার ব্যর্থতার কারণে চট্টগ্রাম নগরের মানুষ বৃষ্টি তো দূরের কথা সামান্য জোয়োরের পানিতে ডুবে হাবুডুবু খাচ্ছে প্রতিনিয়ত। মশার অসহ্য যন্ত্রণার শিকার হচ্ছে। অথচ মশা নিধনে তিনি প্রতিবছর কোটি কোটি টাকা ব্যয়ের হিসেবে দেখিয়েছেন।
ময়লা-আবর্জনা নিষ্কাশন ও পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতায় শত শত কোটি টাকা ব্যয় দেখালেও নগরবাসী ময়লা আবর্জনার দুর্গন্ধে নগরীর কোথাও স্বস্তিতে চলাফেরা করতে পারছে না। যেখানে যায় সেখানে নাক চেপে মুখ লুকিয়ে থাকতে হয়।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রফেসর ড. আবু রেজা মো. নেজাম উদ্দিন নদভী বলেন, আ জ ম নাছির উদ্দিন মেয়র হলে নগরীর উন্নয়নের জন্য নিজের টাকাও বিলিয়ে দেবেন। এটাই আমার বিশ্বাস। কারন তাকে আমি চিনি। তিনি বিশাল মনের অধিকারী।
মতবিনিময় সভা উদ্ধোধন করেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ। বক্তব্য রাখেন, মোস্তফা গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান শফিক উদ্দিন। ইসলামিয়া কলেজের অধ্যক্ষ রেজাউল করিম চৌধুরী, সেন্ট্রার প্লাজা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোস্তাক আহমেদ চৌধুরী, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের উপ দপ্তর সম্পাদক বিজয় বড়–য়া, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা আবদুল কাদের সুজন, ডা. শাহ আলম প্রমূখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নাগরিক কমিটির সাধারন সম্পাদক সালাউদ্দিন হিরু।