মজলুম জননেতা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৩৮তম মুত্যুবার্ষিকী পালিত

প্রকাশ:| সোমবার, ১৭ নভেম্বর , ২০১৪ সময় ০৯:৪১ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন আহমদ চৌধুরী বলেছেন, ধর্মপ্রাণ, প্রগতিবাদী ও দেশপ্রেমিক নেতা ছিলেন মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে ভাসানী নিজের সন্তানের চেয়ে বেশী ভালবাসতেন। ১৯৬৯ সনের গণ অভ্যূত্থানে ভাসানী’র ভূমিকা ও মহান মুক্তযুদ্ধে তার ভূমিকা ছিল অতুলনীয়। বিশাল হৃদয়ের অধিকারী মাটি ও মানুষের বন্ধু ভাসানীর জীবন চরিত্র অনুসরণ করে বর্তমান তরুন সমাজকে দেশপ্রেমিক হওয়ার আহবান জানান। ১৯৭১ সনের মুজিবনগর সরকারের উপদেষ্টা মজলুম জননেতা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৩৮তম মুত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি, ইপিজেড ও পতেঙ্গা থানার যৌথ আয়োজনে ১৭ নভেম্বর ২০১৪খ্রি. বিকেলে নগরীর নয়ারহাটে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির ভাষনে তিনি এ সব কথা বলেন।
স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি পরিষদ নেতা সেলিম আফজল। স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দিন আহমদ চৌধুরী। প্রধান আলোচক ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. আবদুর রহিম। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মোহাম্মদ ইলিয়াছ, সাবেক কমিশনার হাজী মোহাম্মদ আসলাম, সাবেক কমিশনার হাজী জয়নাল আবদীন, মুক্তিযোদ্ধা এস এম তাহের। আলোচনা করেন বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি পরিষদের রেজাউল করিম খন্দকার বুলবুল, মোহাম্মদ সেলিম, হাজী নুরুল আলম, আকতার হামিদ, মো. জাবেদুল ইসলাম শিপন, মো. আবদুর রউফ, মো. জাহিদ হোসেন, কাজী হানিফ পারভেজ, মো. ছালেহ জাহাঙ্গীর, মো. মিজানুর রহমান, মো. বদিউল আলম বিপু, মো. সাখাওয়াত হোসেন সওকত, মো. সালাউদ্দিন, এম ফসিউল আলম, মো. জহুর আলম, মো. মামুন, মো. মনজুর হোসেন মানিক, বাবুল হাওলাদার, মো. মামুন-২, মো. আকতার হোসেন, মো. জসিম উদ্দিন, এম হারুন সিকন্দার, মো. ইলিয়াস, মো. মফিজুর রহমান, সালাউদ্দিন মনু, মো. মহিউদ্দিন, মো. ওবায়দুর রহমান তুহিন, আলফাজসহ অন্যরা।