‘মঙ্গা’ শব্দটি মুছে দিয়েছেন শেখ হাসিনা

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৭ এপ্রিল , ২০১৭ সময় ০৬:২৮ অপরাহ্ণ

এককালে উত্তরাঞ্চলে মঙ্গা থাকলেও এখন আর নেই। ‘মঙ্গা’ শব্দটি ইতিহাস থেকে শেখ হাসিনা মুছে দিয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। বলেছেন, ‘মঙ্গা এখন বাস্তবে নেই, আছে অভিধানে। জননেত্রী শেখ হাসিনার বিচক্ষণতা, দূরদর্শিতা আর পরিকল্পনার কারণে মঙ্গা হারিয়ে গেছে ইতিহাস থেকে।’

শুক্রবার দুপুরে নীলফামারী শিল্পকলা অডিটোরিয়ামে জেলা কৃষকলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা এক সময় বলতাম হাত্তিক (হাতি) ঠেলা যায়, কিন্তু কার্তিক ঠেলা যায় না। সেটা এখন আর নেই। আমরা বলিও না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওই শব্দ ইতিহাস থেকে মুছে দিয়েছেন।’

কৃষি ও কৃষকের পরিবর্তনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘কোথায় কতটা ভর্তুকি দেয়া হচ্ছে সেটা সবাই জানেন। কত দাম দিয়ে সার কিনে কত দামে বিক্রি করা হচ্ছে সেটাও জানেন।’ তিনি সরকারের উন্নয়নের সফলতাগুলো মানুষের কাছে সঠিকভাবে পৌঁছে দিতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

জেলা কৃষক লীগের সভাপতি অক্ষ্ময় কুমার রায়ের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন কেন্দ্রীয় সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লা এবং প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শামসুল হক রেজা।

সংগঠনের জেলা সাধারণ সম্পাদক ইয়াহিয়া আবীদের সভাপতিত্বে সম্মেলনে সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা, সংসদ সদস্য উম্মে কুলসুম স্মৃতি, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ বক্তব্য দেন।

এর আগে নীলফামারী জেলা প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রের উদ্যোগে ১৫জন প্রতিবন্ধীর মাঝে হুইল চেয়ার ও ট্রাইসাইকেল প্রদান করা হয়েছে। বেলা ১১টার দিকে শহরের আলী হোসেন সড়কস্থ নিজ বাসভবনে মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর সুবিধাভোগীদের মাঝে চলাচল সহায়ক উপকরণ তুলে দেন।

বিতরণকালে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন, সমাজ সেবা অধিদপ্তর নীলফামারীর উপ-পরিচালক আব্দুস সোবহান, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুজার রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফা সুলতানা লাভলী, জেলা প্রতিবন্ধী বিষয়ক কর্মকর্তা শাহজাহান আলী, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা ফরহাদ হোসেন, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি মসফিকুল ইসলাম রিন্টু উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রতিবন্ধী বিষয়ক কর্মকর্তা শাহজাহান আলী জানান, জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রের উদ্যোগে এবং মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের বিশেষ সহায়তায় সুবিধাভোগীদের মাঝে হুইল চেয়ার ও ট্রাইসাইকেল বিতরণ করা হয়।