ভয়ভীতি হুমকি,শান্তি শৃংখলা বিনষ্টের প্রতিবাদে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৬ মার্চ , ২০১৪ সময় ০৭:৩৪ অপরাহ্ণ

কাপ্তাই প্রতিনিধি,

কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানের উদ্দ্যোগে তার বাসভবনে গতকাল বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচন পরবর্তি পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকদের ভয়ভীতি, হুমকি-ধমকিসহ ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করার অপচেষ্টার প্রতিবাদে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, নবনির্বাচিত কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ দিলদার হোসেন। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হওয়ার পর পরাজিত প্রার্থী’র (আনারস প্রতীক) সমর্থকরা গত কয়েকদিন ধরে তার সমর্থকদের নানাভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন, হুমকি-ধমকি ও এলাকার শান্তি-শৃংখলা বিনষ্টসহ ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। তিনি বলেন, নির্বাচনের দিন চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নের আওতাধীন ৪টি ভোটকেন্দ্রে পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকরা ভোটারদের নির্বিঘেœ ভোট দানে বাধা সৃষ্টি করে। তার সমর্থকরা এসব কেন্দ্রে জাল ভোট দিয়ে ফলাফল তাদের পক্ষে নেওয়ার চেষ্টা চালায়। জাল ভোট প্রদানকালে ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক বেশ কয়েকজন আনারস সমর্থককে জেল জরিমানা করা হয়। পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকদের আক্রমণে ইতিমধ্যে তার কয়েক সমর্থক আহত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অনেকে এখনও আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে। নির্বিঘেœ তারা চলাচল করতে পারছে না বলে তিনি জানান। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কেপিএম উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়। ভোট গণনা শেষে নির্বাচনী মালামাল নিয়ে উপজেলা কম্পাউন্ডে আসার পথে ৪-৫’শ উচ্ছৃশৃংখল জনতা নির্বাচনী কক্ষে হামলা চালায়। তারা প্রিজাইডিং অফিসার সহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের মারধার করে বেশকিছু সীলমারা ব্যালট পেপার নিয়ে পালিয়ে যায়। ছিনতাইকৃত সীলমারা ব্যালট পেপার নিয়ে ওই দিন রাতে অনেকেই ঘুরাফেরা করতে দেখা গেলেও আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের আটক করেনি। এ ব্যাপারে কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার ডাঃ রেজাউল আলম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ৪-৫’শ ব্যক্তির নামে কাপ্তাই থানায় একটি মামলা দায়ের করেন ২৮.০২.২০১৪ইং তারিখে। ৩ দিন পর ছিনতাই হওয়া বেশকিছু ব্যালট পেপার এলাকার বিভিন্ন স্থানে পাওয়া যায়। এ নিয়ে পরাজিত প্রার্থীর সমর্থকরা উত্তেজিত হয়ে তার সমর্থকদের ভয়ভীতি, হুমকি-ধমকি উচ্ছৃশৃংখল আচরণের মাধ্যমে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করার চেষ্টা চালায় বলে তিনি অভিযোগ করেন। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াজি উল্ল্যাহ, সহ-সভাপতি জাফর আহম্মদ স্বপন, জেলা শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক কবিরুল ইসলাম, উপজেলা শ্রমিক দলের সভাপতি মোঃ আবুল খায়ের, সাবেক ছাত্রদল নেতা আনিছুর রহমান, চিৎমরম ইউনিয়ন বিএনপি’ সভাপতি আজিজুল হক, সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, চিৎমরম ইউনিয়ন শ্রমিক দলের সভাপতি উথোয়াই মং মারমা, ওয়া¹া বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক অজিত কারবারী প্রমূখ। উল্লেখ্য গত ২৭ই ফেব্র“য়ারী কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মোঃ দিলদার হোসেন (দোয়াত কলম) বেসরকারীভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়।