ভোট চুরি করতে পারবেনা তাই সেনা মোতায়েনে ভয়-অলি

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৪ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

এলডিপির চেয়ারম্যান কর্ণেল (অব.) অলি আহম্মদ বীর বিক্রম বলেছেন, নির্বাচন কমিশন ভোটের সময় সেনাবাহিনী মোতায়েনের কথা বলে ভোটারদের সাথে বেঈমানি করেছে। সেনাবাহিনী টহল দিলে সরকার পুলিশ প্রশাসন দিয়ে ভোট চুরি করতে পারবেনা তাই সেনাবাহিনী মোতায়েনে ভয় পায় তারা। তিনি আজ শুক্রবার বিকালে নগরীর রীমা কনভেনশন সেন্টারে মনজুর আলমের সমর্থনে নগরীতে বসবাসরত চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর, দক্ষিন জেলার নাগরিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন।

চট্টগ্রাম উত্তর জেলা এলডিপির সভাপতি সাবেক এমপি নুরুল আলম তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় কর্ণেল অলি ভোটের দ’ুদিন আগে হলেও সেনা টহলের ব্যবস্থা করে নির্বাচন কমিশন জাতির কাছে তাদের নিরপেক্ষতার প্রমান রাখবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন । সেনাবাহিনী ব্যারাকে প্রস্তুত থাকবে নির্বাচন কমিশনের এমন সিদ্ধান্তের বিষয়ে অলি বলেন, রোগী মারা যাওয়ার পর ডাক্তার এসে কি লাভ হবে।
অলি আহম্মদ বলেন, সরকার একদিকে নিরপেক্ষ নির্বাচনের কথা বলছে অপরদিকে ছাত্রলীগ যুবলীগের ক্যাডার দিয়ে রাজপথে বেগম জিয়ার গাড়ীতে হামলা করছে। তিনি নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশ্য বলেন সরকারকে নয় আল্লাহকে ভয় করুন।
অলি
দেশ এখন এক মঘের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন গুম হত্যা এমন ভাবে বেড়েছে যা কোন সভ্য দেশে হয়না। নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের কথা বলে সরকার তাদের দলীয় ক্যাডারদের দিয়ে প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে। নির্বাচনের আগে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের পুলিশ দিয়ে একর পর এক গ্রেফতার করছে।

ছাত্রলীগ যুবলীগ কর্মীরা বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের ভোটারদের হুমকি দিচ্ছে বলে উল্লেখ করে অলি আহম্মদ বলেন বার আউলিয়ার পূন্যভূমি চট্টগ্রামের ভোটাররা কোন হুমকিকে ভয় করেনা। মুক্তিযুদ্ধের সুচনাস্থল চট্টগ্রামের মানুষ ২৮ এপ্রিল এসব হুমকির জবাব ব্যালটের মাধ্যমে দেবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন ।

তিনি বলেন নগর পিতা কেমন হবেন তা নির্বাচনের দায়িত্ব ভোটারদের। মনজুর আলম একা নয় সবাইকে মনজুর আলম হয়ে ২৮ এপ্রিল কমলা লেবুকে বিজয়ী করে গনতন্ত্র রক্ষার আন্দোলনকে আরো বেগবান করতে হবে।

এলডিপি নেতা গোলাম কিবরিয়া শিমুলের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন দক্ষিন জেলা এলডিপির সভাপতি এড, কফিল উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারন সম্পাদক এম এয়াকুব আলী ।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা জালাল উদ্দিন, এলডিপি নেতা এড.ফজলুল আমিন, এড. নাসির উদ্দিন, ফজলুল কাদের তালুকদার, সাহাব উদ্দিন রাশেদ, শাহজাহান, দোস্ত মোহাম্মদ, হুমায়ুন কবির আনসার, আক্তারুল আলম, বিএম সাঈদুল হক, মনসুর আলম, এড. ইকবালুর রহমান, শাহরিয়ার হোসেন ইমরান, তৌফিকুল আজিজ, ইঞ্জিনিয়ার আরফাদুল ইসলাম, মো. মাসুদ, জসিম উদ্দিন, শাহী ইমরান, কায়ছার উদ্দিন প্রমুখ।